BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীদের গতিবিধিতে বাধা নয়’, রাজ্যগুলিকে চিঠি কেন্দ্রের

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 11, 2020 2:27 pm|    Updated: May 11, 2020 3:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে জারি রয়েছে লকডাউন। কারণ একে অপরের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করতে পারলে তবেই ভাইরাস সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব। বেশিরভাগ মানুষই যখন গৃহবন্দি তখন একেবারে প্রথম সারিতে দাঁড়িয়ে ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে চলেছেন চিকিৎসক-সহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাঁদের গতিবিধি আরও মসৃণ করার উদ্যোগ নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে রাজ্যগুলিকে চিঠি পাঠালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব অজয় ভাল্লা। বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যসচিব ও স্বাস্থ্যসচিবদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে সদ্যই বৈঠক করেছেন মুখ্যসচিব রাজীব গৌরা। তারপরের দিনই চিঠি পাঠালেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব।

তিনি চিঠিতে লেখেন, “আগামী ১৭ মে পর্যন্ত দেশজুড়ে জারি রয়েছে লকডাউন। সাধারণ মানুষকে সেই সময় অকারণে রাস্তায় বেরতে দেওয়া হচ্ছে না ঠিকই। তবে কোনওভাবে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, সাফাইকর্মীদের গতিরুদ্ধ করা যাবে। তাঁদের আন্তঃরাজ্য যাতায়াতের পদ্ধতি আরও কীভাবে মসৃণ করা যায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। কারণ, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মীরাই পারে এই পরিস্থিতিতে সকলকে বাঁচাতে। করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করার জন্য তাঁদের অত্যন্ত প্রয়োজন। তাঁরা ছাড়া এ লড়াইতে আমরা জিততে পারব না। স্বাস্থ্যকর্মীদের গতিবিধিতে নিষেধাজ্ঞা জারি হওয়ায় ও প্রতিবেশী রাজ্যগুলিকে বাধা দিয়ে সীমানা বন্ধ করে দেওয়ায় দিল্লি ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় স্বাস্থ্য পরিষেবাকে সমস্যার মুখে পড়তে হয়েছে। মানুষের প্রাণ বাঁচাতে ও জনস্বাস্থ্যের চাহিদা মেটাতে সব স্বাস্থ্যক্ষেত্রের কর্মীর মসৃণ গতিবিধি অত্যন্ত প্রয়োজন।” এছাড়াও প্রতিটি রাজ্যে যাতে সব ক্লিনিক এবং নার্সিংহোম খোলা থাকে, সে বিষয়ে গুলি খোলা নিশ্চিত করতেও বলেছে কেন্দ্র।

[আরও পড়ুন: শ্রমিকদের হেঁটে বাড়ি ফেরা বন্ধে উদ্যোগী কেন্দ্র, সহযোগিতা চেয়ে চিঠি রাজ্যগুলিকে]

এছাড়াও পরিযায়ী শ্রমিকদের বিশেষ ট্রেনে করে পাঠানোর বিষয়ে রাজ্যগুলিকে সহযোগিতা করার কথাও চিঠিতে উল্লেখ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রসচিব রাজীব ভাল্লা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement