BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সংরক্ষণের দাবিতে ফের বনধ মুম্বইয়ে, স্তব্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: August 9, 2018 11:38 am|    Updated: August 9, 2018 11:39 am

Marathas Call For Maharashtra Bandh, Airline Warns Of Delays

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংরক্ষণের দাবিতে ফের উত্তাল মুম্বই৷ প্রশাসনের উপর চাপ বাড়াতে আজ সকাল ৮ থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত বনধ বিক্ষোভ কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ডাক দিয়েছেন আন্দোলকারীরা৷ নতুন করে অশান্তির আশঙ্কায় গোটা মুম্বইজুড়ে কড়া নিরাপত্তা বন্দোবস্ত করা হয়েছে৷ পুনের ৭টি জায়গায় আপাতত বন্ধ ইন্টারনেট পরিষেবা৷ রাজ্যজুড়ে বিশৃঙ্খলা এড়াতে যাত্রীদের সতর্কও করেছে ইন্ডিগো বিমান সংস্থা৷ টুইট করে জানানো হয়েছে, বিক্ষোভের জেরে সাধারণ পরিবহণ ব্যবস্থা বিপর্যস্ত রয়েছে৷ ফলে, যাত্রী বিমান ধরার জন্য হাতে অতিরিক্ত সময় দিয়ে বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন৷

[আরও মহার্ঘ হচ্ছে তাজমহল দর্শন, বাড়ছে টিকিটের দা]

আন্দোলনকারীদের ডাকা বনধের জেরে যেতে জনজীবন স্বাভাবিক থাকে তার সমস্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে মুম্বইবাসীকে আশ্বস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিসের৷ বনধ প্রতিহত করে সরকারি কর্মীদের দপ্তরে হাজিরা দেওয়ার আর্জিও জানানো হয়েছে৷ রাজ্যে অবাঞ্ছিত ঘটনা এড়াতে প্রশাসনকে কড়া হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন৷ একই সঙ্গে আন্দোলনকারীদের শান্ত থাকাও আরজি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ সমস্যা সমাধানের জন্য আন্দোলনকারীদের কাছ থেকে তিন মাস সময়ও চেয়েছেন তিনি৷ মুখ্যমন্ত্রীর তরফে নভেম্বর পর্যন্ত সময় চাওয়া হলেও নিজেদের দাবি থেকে সরতে নারাজ আন্দোলনকারীরা৷ ফলে, আজ বৃহস্পতিবার থেকে ফের নতুন করে বনধ-বিক্ষোভ কর্মসূচি চূড়ান্ত করেছেন মারাঠা সম্প্রদায়ের কয়েক লক্ষ মানুষ৷

[জিন্না প্রধানমন্ত্রী হলে ঐক্যবদ্ধ থাকত ভারত-পাকিস্তান, বিস্ফোরক দলাই লামা]

মারাঠা সম্প্রদায়ের জন্য ১৬ শতাংশ সংরক্ষণের দাবিতে এর আগে গত মাসের শেষ সপ্তাহে কাকাসাহের শিণ্ডে নামের যুবক আত্মহত্যার করেন৷ এই ঘটনার প্রতিবাদে ২৫ জুলাই গোটা মুম্বইজুড়ে বনধ ডাকে মুম্বই ক্রান্তি মোর্চা৷ ঔরঙ্গাবাদের গঙ্গাপুর এলাকায় এই ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিসের বিরুদ্ধে স্লোগান উঠতে শুরু করে৷ রাজ্য প্রশাসেনর বিরদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন মারাঠা সম্প্রয়াদের লোকেরা৷ শিব সেনা সাংসদ চন্দ্রকান্ত খাইরে ও কংগ্রেস নেতা সুভাষ জাম্বাসের উপরও চড়াও হয় উত্তেজিত জনতা৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করে পুলিশ৷

আজ, বৃস্পতিবার ফের সরকারি চাকরি ও শিক্ষায় সংরক্ষণের দাবিতে আন্দোলনে নামেছেন মারাঠিরা৷ মূলত ঔরঙ্গাবাদ ও মারাঠওয়াড়া অঞ্চলে বিক্ষোভ দেখান কয়েক হাজার আন্দোলনকারী৷ তবে, বিক্ষোভ চললেও এখনও পর্যন্ত হিংসার কোনও খবর পাওয়া যায়নি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে