BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বিধ্বংসী আগুনের গ্রাসে সুরাটের বস্ত্র বাজার, কোটি টাকার সামগ্রী পুড়ে ছাই

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 21, 2020 9:07 am|    Updated: January 21, 2020 9:07 am

Massive fire breaks out in textile market in Surat,Gujarat

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুরাটের বস্ত্র বাজারে বিধ্বংসী আগুন। দমকলের ৭০টি ইঞ্জিনের দীর্ঘক্ষণের চেষ্টায় সাহায্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে। মঙ্গলবার ভোরে সুরাটের রঘুবীর মার্কেটের একটি বহুতল থেকে আগুন এবং ধোঁয়া বেরতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পাঠানো হয় দমকলে। সঙ্গে সঙ্গে দমকলের ৪০টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে ইঞ্জিনের সংখ্যা। ডেকে নেওয়া হয় পার্শ্ববর্তী এলাকার দমকল বিভাগকেও। তবে এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর নেই।

গুজরাটের সুরাট দেশের বস্ত্রশিল্পের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। রঘুবীর মার্কেট সেখানকার একটি নামী টেক্সটাইল হাব। তারই একটি বহুতলের ১০ তলায় আগুনের শিখা দেখতে পান স্থানীয়রা। তখন ভোর, ঘুমও ভাঙেনি সকলের। লেলিহান অগ্নিশিখা দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন আশেপাশের মানুষজন। প্রথমে দমকলের ৪০ টি ইঞ্জিন আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। পাশের শিল্পাঞ্চল হাজিরা এলাকার দমকল বিভাগকেও খবর দেওয়া হয়। সেখান থেকে আরও কয়েকটি ইঞ্জিন রঘুবীর মার্কেটের আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। ততক্ষণে অবশ্য পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে কোটি কোটি টাকার জামাকাপড়, কাঁচামাল। কী কারণে আগুন লেগেছে, তা এখনও অজানা দমকল আধিকারিকদের কাছে। একেবারে ভোররাতে ঘটনা ঘটেছে বলে সেখানে কেউ না থাকায় হতাহতের খবর নেই।

[আরও পড়ুন: রোড শোয়ে দেরি, মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারলেন না কেজরিওয়াল]

সপ্তাহের প্রথমার্ধ্বেই এমন দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মাথায় হাত রঘুবীর মার্কেটের ব্যবসায়ীদের। ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি দেখে তাঁদের অনুমান, বড়সড় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছেন তাঁরা। ৫০ থেকে ৭০ কোটি টাকার সামগ্রী নষ্ট হয়ে গিয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে কাপড় এবং কাপড় তৈরির সরঞ্জাম। কীভাবে ফের সব গুছিয়ে নেবেন, তা ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছেন না ব্যবসায়ীরা। শুরু হয়েছে তদন্ত। রঘুবীর মার্কেটের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা সেখানকার বস্ত্রশিল্পে বড় প্রভাব ফেলবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ‘ফের প্রমাণ হল বিজেপিতে পরিবারতন্ত্র চলে না’, নাড্ডার অভিষেকের পর দাবি অমিতের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে