১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মায়ার খেলা! মধ্যপ্রদেশ-রাজস্থানে আলাদা লড়ার সিদ্ধান্ত বিএসপির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 3, 2018 4:57 pm|    Updated: October 3, 2018 4:57 pm

Mayawati to fight alone in MP, Rajasthan's assembly poll

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০১৯ লোকসভার আগে বড়সড় ধাক্কা খেল মহাজোট গঠনের প্রক্রিয়া। কংগ্রেসের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ এনে রাজস্থান এবং মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনেও একা লড়ার সিদ্ধান্ত নিল মায়াবতীর দল বহুজন সমাজ পার্টি। সংবাদসংস্থা এএনআইকে  একথা জানিয়েছেন খোদ দলনেত্রী মায়াবতী।

 

[রাফালে যুদ্ধবিমান ‘গেমচেঞ্চার’, দরাজ সার্টিফিকেট বায়ুসেনা প্রধানের]

কর্ণাটকে কুমারস্বামীর শপথমঞ্চে একসঙ্গে দেখা গিয়েছিল সোনিয়া গান্ধী-মায়াবতীকে। তখন থেকেই শুরু হয় বিজেপি বিরোধী জোটের সলতে পাকানোর কাজ। উত্তরপ্রদেশে লোকসভা নির্বাচনের জন্য আসন সমঝোতা নিয়ে একপ্রস্থ আলোচনাও হয়ে যায় দুই শিবিরের। কিন্তু গোল বাঁধল তিন রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রে। বিধানসভা নির্বাচনে তিন রাজ্যে মায়াবতীকে পাশে চাইছিল কংগ্রেস। রাজস্থান এবং ছত্তিশগড়ে স্থানীয় নেতাদের একা লড়ার ইচ্ছে থাকলেও  মধ্যপ্রদেশে মায়ার সঙ্গে গাঁটছাড়া বাঁধতে কার্যত মরিয়া ছিলেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া, কমলনাথরা। কিন্তু কংগ্রেসের সে আশায় জল ঢেলে দিলেন বিএসপি নেত্রী।

[এবার রাষ্ট্রসংঘ স্বীকৃতি দিচ্ছে মোদিকে, সেরার পুরস্কার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী]

বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে মায়াবতী বলেন, “আমার মনে হয় রাহুল গান্ধী এবং সোনিয়া গান্ধী সৎভাবেই বিএসপির সঙ্গে জোট করতে চাইছিলেন । কিন্তু কংগ্রেসের মধ্যে কিছু নেতা আছেন, যাঁরা বিএসপিকে শেষ করে দিতে চান। দিগ্বিজয় সিং আরএসএসের এজেন্ট, উনি চান না কংগ্রেস-বিএসপির জোট হোক। কংগ্রেস অনেক অহংকারী হয়ে গিয়েছে, ওরা এখনও এই ভুল ধারণায় বেঁচে আছে যে বিজেপির বিরুদ্ধে ওরা একা লড়তে পারবে, কিন্তু মানুষ এখনও কংগ্রেসকে তাদের দুর্নীতির জন্য ক্ষমা করেনি। কংগ্রেস জাতপাতের রাজনীতি করেছে, মুসলিমদের টিকিট দিতে ভয় পাচ্ছে। ” স্বাভাবিকভাবেই মায়াবতীর  অলআউট আক্রমণে স্বাভাবিকভাবেই চাপে কংগ্রেস। গত নির্বাচনে মধ্যপ্রদেশে ৪ শতাংশ ভোট পেয়েছিল বিএসপি। কংগ্রেসের আশা ছিল সেই ভোট তাদের শিবিরে যোগ হলে বিজেপিকে হারাতে কোনও সমস্যায় হবে না। কিন্তু মায়ার নয়া পদক্ষেপে সমস্যা বাড়ল হাত শিবিরের। সমস্যা বাড়ল মহাজোটের ক্ষেত্রেও। যদিও, বিধানসভা নির্বাচন আর লোকসভা নির্বাচনকে এক করে দেখা উচিত নয় বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তারা বলছেন, আসলে লোকসভায় আগে নিজের দলের ওজন বাড়িয়ে নিতে চাইছেন মায়াবতী, সেই সঙ্গে কংগ্রেসকেও চাপে রাখতে চাইছেন, যাতে লোকসভায় আসন-রফায় সুবিধা হয়।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে