Advertisement
Advertisement

কাশ্মীরে শান্তি ফেরাতে মোদি ব্যর্থ, তোপ মনমোহনের

'শুধু কাশ্মীর নয়, দেশের সামগ্রিক অর্থনীতিকেও নষ্ট করছে এই সরকার।'

Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:March 18, 2018 2:06 pm
  • Updated:August 13, 2019 6:54 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রতিদিনই জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতির আরও অবনতি হচ্ছে। আর এর জন্য দায়ী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অদূরদর্শীতা। নয়াদিল্লিতে কংগ্রেসের ৮৪-তম প্লেনারি অধিবেশনে যোগ দিয়ে এই কথাই বললেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। তিনি বলেন, ‘জম্মু ও কাশ্মীরের পরিস্থিতি সামলাতে ব্যর্থ মোদি। উপত্যকার এমন দুর্দশা আগে কখনও দেখিনি।’

[কাপুরুষের মতো হামলা ভূস্বর্গে, ৫ জনকে হত্যা করল পাক সেনা]

বিজেপি ও পিডিপির মধ্যে টানাপোড়েনের প্রসঙ্গে মনমোহন সিং জানান, দুই দলের মধ্যেই আদর্শগত ফারাক রয়েছে। মনমোহনের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় সরকার কাশ্মীরে এমন এক সরকার গড়েছে যেখানে প্রশাসনেরই দুই অংশ একে অপরের বিরুদ্ধে কাজ করছে। ২০১৫ বিধানসভা নির্বাচনে জোট বেঁধে জম্মু ও কাশ্মীরে সরকার গড়ে বিজেপি ও পিডিপি। কিন্তু তারপর থেকেই নানা ইস্যুতে দুই দলের মধ্যে দ্বন্দ্বের ইঙ্গিত মিলেছে। বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে সবচেয়ে বড় ফাটল ধরে দুই জোট সঙ্গীর মধ্যে। মতবিরোধ রয়েছে ‘AFSPA’ আইন বা সশস্ত্র সেনার বিশেষ ক্ষমতার প্রয়োগ নিয়েও। শুধু কাশ্মীর প্রসঙ্গই নয়, দেশের অর্থনীতি নিয়েও তাঁর উত্তরসূরী ছেলেখেলা করছে বলে সরব হয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী।

Advertisement

[‘জাতীয় সংগীত থেকে বাদ দেওয়া হোক অধিনায়ক শব্দটি’]

গত সপ্তাহে এই মতবিরোধ চরমে ওঠে পিডিপি মন্ত্রী হাসিব দ্রাবুকে পদত্যাগ করতে বলায়। তাঁকে পদত্যাগের নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। এই পদক্ষেপে ক্ষুব্ধ হয়ে বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব রাজ্য সরকারকে বার্তা পাঠিয়ে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে। ইঙ্গিত দেওয়া হয়, জোট ধর্ম পালন করতে চাইলে এরকম হঠকারী পদক্ষেপ করা যাবে না। গত ২ বছর ধরেই কাশ্মীর পরিস্থিতির তীব্র অবনতি হয়েছে। পাক জঙ্গিদের প্রতি সহানুভূতিশীল হয়ে পড়েছেন জম্মু ও কাশ্মীরের যুবাদের একাংশ। কেন্দ্রের সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানেও তাঁরা বাধা দিচ্ছেন, বিক্ষোভ দেখছেন বা সেনার বিরুদ্ধে পাথর ছুড়ছেন। এই প্রসঙ্গে মনমোহন সিং বলেছেন, কেন্দ্রকে সবার আগে বুঝতে হবে সমস্যাটা কোথায়। তারপর বিচক্ষণতার সঙ্গে ওই সমস্যা মেটাতে হবে। শুধু বলপ্রয়োগ করলেই উপত্যকার সব সমস্যা মিটে যাবে না, ইঙ্গিত প্রক্তন প্রধানমন্ত্রীর।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ