২ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

দেশের থেকে দলের গরজ বেশি বিরোধীদের, কটাক্ষ প্রধানমন্ত্রীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 16, 2016 4:49 pm|    Updated: December 16, 2016 4:49 pm

Modi slams opponent over demonetisation issue

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের পর থেকে ক্রমাগত বিরোধীদের নিশানায় প্রধানমন্ত্রী৷ কখনও বলা হয়েছে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন৷ কখনও বা তাঁকে স্বৈরাচারী, তুঘলক, হিটলার আখ্যা দেওয়া হয়েছে৷ একেবারে নিজস্ব মেজাজেই সব আক্রমণের জবাব দিলেন মোদি৷ বিজেপির সংসদীয় দলের বৈঠকে সাফ জানালেন, বিরোধীদের কাছে দেশের থেকেও দলের গরজ বেশি৷ তাই নোট বাতিল নিয়ে অহেতুক বিরোধীতায় নেমেছে তারা৷

এদিন যুক্তিকে হাতিয়ার করেই বিরোধী জোটের তাসের ঘর প্রায় উড়িয়ে দিলেন মোদি৷ কৌশলী নিশানায় আঘাত হানেন কংগ্রেস শিবিরে৷ প্রসঙ্গত আজই কংগ্রেসে সহ-সভাপতির সঙ্গে জরুরি ভিত্তিতে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী৷ এই ভেদাভেদে এমনিতেই বিরোধী ঐক্যের কোমর ভাঙবে বলে মত রাজনৈতিক মহলের৷ কিন্তু তার পাশাপাশি কংগ্রেসের বিরুদ্ধে তোপ দাগতেও ছাড়লেন না মোদি৷ ইন্দিরা জমানার উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেই সময়ই বিরোধীরা দাবি তুলেছিল যে ইন্দিরাজি কালো টাকায় চলছেন৷ নোট বাতিলের প্রসঙ্গ তখনই উঠেছিল৷ কিন্তু তখন তা করা হয়নি৷ এমনকী সে সময় কমিউনিস্ট পার্টির তরফেও একই দাবি করা হয়েছিল৷ পরবর্তীকালে মনমোহন সিংও নোট বাতিলের প্রসঙ্গ তুলেছিলেন৷ তবে এ সব কোনও কথার কথা নয়৷ বিভিন্ন সময় সংসদে দেওয়া বক্তৃতার উল্লেখ করে হাতেকলমে তিনি প্রমাণ করেন যে, দেশে বিভিন্ন সময়ে নোট বাতিলের দাবি উঠেছে৷ কিন্তু কোনও দলই তা করে উঠতে পারেন৷ বর্তমান শাসকদল তা সাহস করে চলেছে৷ আর এ নিয়ে যত বিরোধিতার রব উঠছে তাদেরও তুলোধোনা করেন প্রধানমন্ত্রী৷ একসময় যারা নোট বাতিল চেয়েছিল, এখন তা হওয়ার ফলে কেন বিরোধিতা করছেন সে প্রশ্ন তোলেন তিনি৷ তাঁর মতে, বিরোধীদের কাছে দেশের থেকেও দল বড়৷ আর তাই দলের প্রয়োজনেই একসময় নোট বাতিল আটকে দেওয়া হয়েছিল৷ এখন দলের প্রয়োজনেই তার বিরোধিতা করা হচ্ছে৷ বর্তমান শাসকদল সে পরোয়া করে না বলেই এত গুরত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছে বলে জানান নমো৷ এই মঞ্চ থেকেই প্রধানমন্ত্রী বিরোধীদের মুখোশ খুলে দিতে চাইলেন বলেও মত অনেকের৷

একই সঙ্গে তিনি জানান, দুর্নীতির মধ্যে এই লড়াই জারি থাকবে৷ যত সমালোচনা ও বিরোধিতাই হোক, দেশের খাতিরে লড়াই চলবে৷ পাশাপাশি ডিজিটাল অর্থনীতির পক্ষেও সওয়াল করেন তিনি৷ আনেন ডিজিধন প্রকল্পের কথা৷ যে লাকি ড্রয়ের কথা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করা হয়েছে৷ প্রধানমন্ত্রীর দাবি, এতদিন একজন নিতান্ত দরিদ্র মানুষ ব্যাঙ্ক থেকে লোন নিতে পারতেন না৷ কেননা তাঁর উপার্জনের কোনও হিসেব নেই৷ ফলত ব্যাঙ্ক তা অনুমোদন করত না৷ কিন্তু ডিজিটাল অর্থনীতিতে ক্রমে ক্রমে এই ব্যবধান দূর হবে৷ মূলত দেশের ভিতর থাকা অর্থনৈতিক শ্রেণির দূরত্ব ঘুচবে বলেই আজ জোর দেন তিনি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement