BREAKING NEWS

২৮ চৈত্র  ১৪২৭  রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মধ্যপ্রদেশের মোরেনাতে বিষমদের বলি ১৯, চিকিৎসাধীন বহু, অস্বস্তিতে বিজেপি সরকার

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 13, 2021 12:27 pm|    Updated: January 13, 2021 2:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্কবিষমদ খেয়ে মৃত্যুমিছিল মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) মোরেনা (Morena) জেলায়। ক্রমশই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। এখনও পর্যন্ত ১৯ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। হাসপাতালে সংকটজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন বহু। সোমবার রাতে প্যাকেটে ভরা সাদা রঙের মদ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন জেলার মনপুর ও পাহাওয়ালি গ্রামের বাসিন্দারা। আশপাশের গ্রাম থেকেও অসুস্থতার খবর আসে। মঙ্গলবার থেকেই শুরু হয় মৃত্যুমিছিল। মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহা‌ন (Shivraj Singh Chouhan) ঘটনাটিকে ‘দুর্ভাগ্যজনক’ আখ্যা দিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। 

আজ সকালে শীর্ষ অফিসারদের সঙ্গে আপৎকালীন বৈঠক সারেন তিনি। ইতিমধ্যেই জেলার আবগারি অফিসার, পুলিশকর্মী-সহ চারজনকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। কাল রাতেই টুইট করে শিবরাজ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, ঘটনায় দোষী সাব্যস্তদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করবে সরকার। তিনি লেখেন, ‘‘মোরেনার ঘটনা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। তদন্ত শুরু হয়েছে। জেলার আবগারি অফিসারকে ইতিমধ্যেই সাসপেন্ড করা হয়েছে। তদন্তে যেই দোষী সাব্যস্ত হোক, আমরা তাদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করব।’’ প্রসঙ্গত, মৃতদেহগুলির ময়নাতদন্ত করে খতিয়ে দেখা হচ্ছে, বিষমদ খেয়েই তাঁদের মৃত্যু হয়েছে কিনা। ডিআইজি জানিয়েছেন, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৪ ধারা এবং আবগারি আইনের ৩৪ ও ৯১ ধারায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ঘনিষ্ঠ মুহুর্তের ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে নাবালিকাকে গণধর্ষণ, কাঠগড়ায় প্রেমিক-সহ চার]

গত অক্টোবরেও উজ্জয়িনীতে বিষমদ খেয়ে ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছিল। তিনমাসের মধ্যে এই ধরনের দু’টি ঘটনা ঘটার পরে রাজ্য সরকারকে তোপ দাগতে শুরু করেছে বিরোধীরাও। কংগ্রেস নেতা ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথের দাবি, মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান যে পদক্ষেপের দাবি করছেন, তা একেবারেই ফাঁকা বুলি। তাঁর কথায়, ‘‘মদ মাফিয়ারা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। উজ্জয়িনীর পরে এবার মোরেনাতেও এতজনের মৃ্ত্যু হয়েছে।’’ কয়েকদিন আগেই মাফিয়াদের বিরুদ্ধে হুংকার দিতে দেখা গিয়েছিল শিবরাজকে। এবার বিষমদ কাণ্ডে শেষ পর্যন্ত কী পদক্ষেপ করেন তিনি, সেটাই দেখার।

[আরও পড়ুন: সুরক্ষা নিয়ে চিন্তা! এখনই করোনার ভ্যাকসিন নিতে চান না বহু ভারতবাসী, বলছে সমীক্ষা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement