BREAKING NEWS

১৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

দুধ কেনার পয়সা নেই, ১৬ দিনের যমজ সন্তানদের গলা টিপে খুন করে কবর দিল মা!

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 29, 2022 1:54 pm|    Updated: September 29, 2022 3:01 pm

Mother strangulates 16 day old twin sons and buried in Bhopal | Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের সদ্যোজাত যমজ শিশুদের গলা টিপে খুন করে কবর দিল মা। এমনই মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী হল মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) ভোপাল (Bhopal)। প্রথমে অভিযুক্ত মহিলা পুলিশে তাঁর দুই সন্তানের নিখোঁজ হওয়ার ডায়রি দায়ের করেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত জেরায় তিনি নিজের অপরাধ কবুল করেন। পুলিশ একটি ঝোপের পাশ থেকে দুই শিশুর দেহ উদ্ধার করেছে। এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

কিন্তু কেন একজন মা এভাবে নিজের ১৬ দিনের শিশুদের খুন করল? সেকথা বলতে গিয়ে অভিযুক্ত স্বপ্না ধকড় জানিয়েছেন, তাঁর ভয় ছিল অভাবের সংসারে আরও দুটো পেট চালানো তাঁদের পক্ষে সম্ভব হবে না। তাই তিনি এই ভয়ংকর ঘটনাটি ঘটিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: বিবাহিত না হলেও গর্ভপাতের সমান অধিকার, ‘বৈবাহিক ধর্ষণ’ও ‘ধর্ষণ’, বেনজির রায় সুপ্রিম কোর্টের]

স্বপ্না আরও জানিয়েছেন, তাঁদের আরও একটি সন্তান রয়েছে। তার বয়স ৩ বছর। এদিকে স্বামী ছ’মাস হয়ে গেল বেকার। সংসার চালানোই দায়। এর উপর রয়েছে শ্বশুরবাড়ির বাকিদের নিয়মিত গঞ্জনা। স্বপ্না বুঝতে পারছিলেন পরিস্থিতি যা, তাতে আর বড় জোর ২ মাস চলবে। এরপর পেট ভরানোর খাবারটুকুও জুটবে না। এই পরিস্থিতিতে দুই সদ্যোজাতকে বড় করে তোলা সম্ভব হবে না। তাই শেষ পর্যন্ত নিজের যমজ সন্তানদের খুন করে তাঁদের কবর দিয়ে দেন স্বপ্না।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর তিনি পুলিশের কাছে নিখোঁজ ডায়রি করেন। জানান, একটি গণ শৌচাগারের সিঁড়িতে শিশুদের রেখে গিয়েছিলেন তিনি। ফিরে এসে দেখেছিলেন তারা নেই। কিন্তু জেরা শুরু হতে ক্রমে ভেঙে পড়েন স্বপ্না। স্বীকার করে নেন নিজের অপরাধ।
পুলিশ জানিয়েছে, তদন্ত শুরু হতেই তারা বুঝতে পেরেছিল ওই মহিলা কিছু লুকোচ্ছেন। কিন্তু স্বপ্না নিজেই যে শিশুদের খুন করে পুঁতে দিয়েছেন তা জানতে পেরে স্তম্ভিত হয়ে গিয়েছে তারাও।

[আরও পড়ুন: ইরাকে ভয়াবহ হামলা ইরানের, মৃত অন্তত ১৩, বিক্ষোভ থেকে নজর ঘোরাতে যুদ্ধের আশ্রয়!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে