BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মঙ্গলবারের মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করুন, নাহলে…’, কমল নাথকে কড়া চিঠি রাজ্যপালের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 16, 2020 6:50 pm|    Updated: March 16, 2020 6:57 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোমবার তাঁর নির্দেশ মানা হয়নি। তিনি চিঠি লেখা সত্ত্বেও মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ আস্থা ভোটে সায় দেননি। ক্ষুব্ধ মধ্যপ্রদেশের রাজ্যপাল লালজি ট্যান্ডন কমল নাথকে (Kamal Nath) নতুন ডেডলাইন দিলেন। তাঁর নির্দেশ, মঙ্গলবারের মধ্যে নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করুন। নাহলে প্রমাণ হয়ে যাবে, আপনার সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠ নয়।

এদিকে, মঙ্গলবার কমল নাথকে তীব্র সুরে বিঁধেছেন তাঁর পূর্বসূরী শিবরাজ সিং চৌহান(Shivraj Singh Chouhan)। তাঁর বক্তব্য, কোনওভাবেই মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সরকার বাঁচানো যাবে না। এমনকী করোনা ভাইরাসও বাঁচাতে পারবে না কমল নাথকে। কমল নাথ সরকার সোমবার মহারাষ্ট্রে আস্থাভোটের আয়োজন না করায়, শিবরাজ যে যারপরনাই অসন্তুষ্ট তা বলার অপেক্ষা রাখে না। তাঁর অভিযোগ, করোনা ভাইরাকসে ঢাল করে আস্থাভোট এড়িয়ে যেতে চাইছে কংগ্রেস সরকার। সংখ্যাগরিষ্ঠতা নেই জেনেই নানান অজুহাত দেখাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী কমল নাথ।

[আরও পড়ুন: পিছিয়ে গেল আস্থা ভোট, ২৬ মার্চ পর্যন্ত মুলতুবি মধ্যপ্রদেশ বিধানসভা]

উল্লেখ্য, সোমবারই মধ্যপ্রদেশ বিধানসভায় আস্থাভোট করানোর নির্দেশিকা দিয়েছেলেন রাজ্যপাল লালজি ট্যান্ডন(Lalji Tandon)। কিন্তু, স্পিকার পিএন প্রজাপতি সেই নির্দেশ উপেক্ষা করেন। রাজ্যপালের অভিভাষণের পরই মধ্যপ্রদেশ বিধানসভার অধিবেশন ১০ দিনের জন্য মুলতুবি হয়ে যায়। অর্থাৎ তাঁর আগে আস্থাভোটের কোনও সম্ভাবনা নেই। স্পিকারের যুক্তি, করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে দেশের অনেক রাজ্যেই বন্ধ হচ্ছে । কিন্তু, স্পিকারের সেই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বিজেপি প্রথমে সুপ্রিম কোর্ট এবং পরে রাজ্যপালের দ্বারস্থ হন। সুপ্রিম কোর্টে শিবরাজ সিং চৌহানরা আবেদন করেন ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আস্থা ভোট করানোর নির্দেশ দিতে। শীর্ষ আদালতে বিজেপির সেই আবেদনের শুনানি হবে মঙ্গলবার। সর্বোচ্চ আদালতে মামলা করার পরই শিবরাজ সিং হুঙ্কার দেন, মধ্যপ্রদেশের কংগ্রেস সরকারকে করোনা ভাইরাসও বাঁচাতে পারবে না।

[আরও পড়ুন: ‘সিস্টেম ভেঙে পড়েছে, আরও ব্যাংক বন্ধ হবে’, অর্থনীতি নিয়ে নয়া আশঙ্কা রাহুলের]

সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করার পর রাজ্যপাল লালজি ট্যান্ডনেরও দ্বারস্থ হন বিজেপি বিধায়করা। ট্যান্ডন বিজেপি বিধায়কদের আশ্বস্ত করেন, কোনওভাবেই তাঁদের নৈতিক অধিকার কেড়ে নেওয়া হবে না। তারপরই কমল নাথকে কড়া ভাষায় চিঠি লেখেন রাজ্যপাল। তিনি বলেন, “এটা অত্যন্ত দুঃখজনক যে আমার দেওয়া সময়সীমার মধ্যে আপনি সংখ্যগরিষ্ঠতা প্রমাণ না করে আমাকে পালটা চিঠি লিখেছেন। তাছাড়া, সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ না করার পিছনে আপনি যে যুক্তি দিয়েছেন তা একেবারেই অর্থহীন এবং ভিত্তিহীন। মঙ্গলবারের মধ্যেই নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করুন। নাহলে ধরে নেওয়া হবে আপনার সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠ নয়।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement