Advertisement
Advertisement

Breaking News

Madhya Pradesh

রামনবমীর হিংসায় সম্পত্তি নষ্ট! ১২ বছরের কিশোরকে তিন লক্ষ টাকা জরিমানা মধ্যপ্রদেশ সরকারের

স্কুল পড়ুয়ার বাবাকেও প্রায় ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ।

MP Govt, fine 3 Lakh 12 yrs old boy for Ram Navami Violence | Sangbad Pratidin
Published by: Paramita Paul
  • Posted:October 19, 2022 10:15 am
  • Updated:October 19, 2022 11:50 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রামনবমীর হিংসায় (Ram Navami Clash) জড়িত থাকার দায়ে জরিমানা দিতে হবে ১২ বছরের মুসলিম কিশোরকে। সরকারের কোষাগারে জমা করতে হবে প্রায় ৩ লক্ষ টাকা। এমনই নোটিস ধরিয়েছে বিজেপি-শাসিত মধ্যপ্রদেশের শিবরাজ সিং চৌহানের সরকার। শুধু কিশোর নয়, তার বাবাকেও দিতে হবে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা। আর এই নোটিস ঘিরেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক।

গত এপ্রিল মাসে রামনবমীকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) খাড়গন জেলা। দু’পক্ষ একে অপরের দিকে পাথর ছোঁড়ে। ভাঙচুর হয় বাড়ি-ঘর। প্রচুর সম্পত্তি নষ্ট হয়। সেই অশান্তির জেরে নষ্ট হওয়া সম্পত্তির ক্ষতিপূরণ অভিযুক্তদের থেকেই আদায় করছে সরকার। আইনিভাবে তাদের সেই ক্ষমতা রয়েছে সরকারের। সেই আইনের বলে অভিযুক্তদের বাড়িতে নোটিস পাঠানো হচ্ছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: সোদপুরে ‘শ্লীলতাহানি’র শিকার ইউটিউবার মন্টি রায়, প্রতিবাদ করায় খুনের হুমকি! ভাইরাল ভিডিও]

জানা গিয়েছে, অষ্টম শ্রেণির এক পড়ুয়াকে নোটিস পাঠিয়েছে শিবরাজ সিং চৌহানের সরকার। কিশোরের এক মহিলা প্রতিবেশী অভিযোগ করে, রামনবমীর হিংসায় যুক্ত ছিল ওই কিশোর। প্রতিবেশীর সম্পত্তি নষ্ট ও লুঠ করেছিল সে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে কিশোরের কাছে থেকে ক্ষতিপূরণ বাবদ ২ লক্ষ ৯০ হাজার টাকা আদায় করতে চায় রাজ্য় সরকার। পাশাপাশি তার বাবা কালু খানকে ৪ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা জমা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

দিন আনা দিন খাওয়া পরিবার কোথায় পাবে এত টাকা, তা ভেবেই মাথায় হাত পড়েছে কালু খানের। তাঁর আশঙ্কা, টাকা দিতে না পারলে গ্রেপ্তার করা হতে পারে। কালু খানের দাবি, ছেলে নির্দোষ। তাঁর কথায়, ”আমার ছেলে নাবালক। সেদিন যখন এসব হচ্ছিল ও আমাদের ঘরে ঘুমোচ্ছিল। আমরা বিচার চাই।” কিন্ত কোথায় মিলবে বিচার? কারণ দ্য প্রিভেনশন অ্যান্ড রিকভারি অফ ড্যামেজস টু পাবলিক প্রপার্টি আইন অনুযায়ী ক্লেইম ট্রাইবুন্যালের নোটিসকে একমাত্র চ্যালেঞ্জ করা যায় হাই কোর্টে। কিন্তু দীর্ঘ এই আইনি লড়াই লড়বে কে? আইনি লড়াইয়ের খরচই বা জোগাবে কে? উঠছে প্রশ্ন। 

[আরও পড়ুন: চোখ রাঙাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় ‘সিত্রাং’, কালীপুজোয় প্রবল দুর্যোগের আশঙ্কা বাংলায়!]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ