৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসমের পর এবার ঝাড়খণ্ড৷ ফের চোর সন্দেহে বেধড়ক মারধর করা হল এক মুসলমান যুবককে৷ একটানা ১৮ ঘণ্টা ধরে মারধরের পাশাপাশি তাঁকে দিয়ে জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানো হয় বলেও অভিযোগ৷ অত্যাচারের জেরে মাত্র চব্বিশ বছর বয়সি ওই যুবকটির মৃত্যু হয়েছে৷

[ আরও পড়ুন: বিমানবন্দর থেকে মানিব্যাগ চুরির জের! বরখাস্ত এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলট]

নিহত ওই যুবকের নাম তবরেজ আনসারি৷ পুণেতে দিনমজুরের কাজ করতেন তিনি৷ ইদের ছুটি কাটাতে গ্রামে এসেছিলেন৷ পরিজনেরা তাঁর বিয়েরও বন্দোবস্ত করেছিল। গত ১৮ জুন দুজনের সঙ্গে জামশেদপুরে যাচ্ছিলেন তবরেজ৷ অভিযোগ, ঝাড়খণ্ডের খারসাওয়ান দিয়ে যাওয়ার সময় চোর সন্দেহে বেশ কয়েকজন তাঁকে ঘিরে ধরে৷ সুযোগ বুঝে দুই সঙ্গী পালিয়ে যায়৷ উন্মত্ত জনতার রোষের শিকার হন তবরেজ৷ স্থানীয়রা কেউ লাঠি আবার কেউ বা হাত দিয়ে তবরেজ ঘিরে ধরে বেধড়ক মারধর করতে থাকে৷ আক্রমণকারীদের কাছে কাকুতি মিনতি করলেও কোনও লাভ হয়নি৷ একটানা প্রায় ১৮ ঘণ্টা ধরে এভাবেই তবরেজের উপর চলে অকথ্য অত্যাচার৷ মারধরের পাশাপাশি তবরেজকে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বাধ্য করা হয় বলেও অভিযোগ৷

[ আরও পড়ুন: সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় স্বাধীনতা নেই! মার্কিন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের দাবি খারিজ করল ভারত]

তবরেজকে না বাঁচিয়ে, অমানবিকভাবে তাঁর উপর অত্যাচারের ছবি-ভিডিও মোবাইল বন্দি করতেও দেখা গিয়েছে অনেককেই৷ সেই ভিডিও ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে৷ যা পুলিশের কাছেও এসে পৌঁছেছে৷ পুলিশি হস্তক্ষেপেই তবরেজকে উদ্ধার করা হয়৷ প্রথমে পুলিশ হেফাজতে রাখা হয় তাঁকে৷ গত শনিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয় তবরেজের৷ তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়৷ সেখানেই প্রহৃত ওই মুসলমান যুবকের মৃত্যু হয়৷ ভিডিওর সূত্র ধরে পুলিশ পাপ্পু মণ্ডল নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে৷ বাকিদের খোঁজে তল্লাশি জারি রেখেছে৷ ধরপাকড়ের পরে দিনের পর দিন গণপিটুনির মতো ঘটনা বাড়তে থাকায় চিন্তিত প্রশাসনিক আধিকারিকরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং