Advertisement
Advertisement

Breaking News

Badrinath Namaz

বদ্রীনাথ মন্দিরের ত্রিসীমানায় নমাজ নয়, ৪০ কিমি দূরে ইদ পালনের নির্দেশ প্রশাসনের

মন্দিরের মাহাত্ম্যের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত।

Muslims of Badrinath will celebrate Eid at Joshimath, says police | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:June 28, 2023 8:43 pm
  • Updated:June 28, 2023 8:43 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বদ্রীনাথে (Badrinath) ইদের নমাজ পড়া যাবে না। ৪০ কিলোমিটার দূরে যোশীমঠে গিয়ে মুসলিমদের নমাজ (Namaz) পড়তে নির্দেশ দিল স্থানীয় পুলিশ। মুসলিমদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানা গিয়েছে। বদ্রীনাথের পরিবর্তে যোশীমঠে (Joshimath) নমাজ পড়তে কোনও অসুবিধা নেই বলেই মুসলিমদের দাবি। প্রসঙ্গত, বছর দুয়েক আগে মন্দির সংলগ্ন এলাকায় নামাজ পড়া নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। এখনও সেই ঘটনার তদন্ত চলছে। তাই অশান্তি এড়াতেই মন্দির এলাকা থেকে দূরে নমাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবারই বিশ্বজুড়ে পালিত বকরি ইদ (Eid)। তার আগেই বদ্রীনাথের মুসলিমদের সঙ্গে বৈঠকে বসে স্থানীয় থানার পুলিশ। তারপরেই বদ্রীনাথ থানার এসএইচও কেসি ভাট বলেছেন, “সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সদস্যদের সঙ্গে বিশেষ বৈঠক করেছি আমরা। সকলে মিলেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, বদ্রীনাথের বদলে যোশীমঠে ইদের নমাজ পড়া হবে।” পুলিশ আধিকারিক আরও বলেন, মন্দিরের মাহাত্ম্যের কথা মাথায় রেখেই একমত হয়েছেন সকলে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: খাস কলকাতার ব্যস্ত রাস্তায় দুর্ঘটনা, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পরপর ৮ গাড়িতে ধাক্কা যাত্রীবোঝাই বাসের]

বদ্রীনাথের একাধিক মন্দিরে মেরামতির কাজে নিযুক্ত রয়েছেন বহু মুসলিম। এই পরিযায়ী শ্রমিকরাই মূলত বদ্রীনাথের বাসিন্দা। এছাড়াও স্থায়ীভাবে বদ্রীনাথে বসবাস করেন মুসলিমরা। সকলেই বদ্রীনাথ থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে যোশীমঠে গিয়ে নমাজ পড়তে রাজি হয়েছেন বলেই জানিয়েছেন স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান প্রবীন ধ্যানি।

Advertisement

চার ধাম যাত্রার মধ্যে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বদ্রীনাথের মন্দির। ধ্যানি বলেন, “সেই স্থানের পবিত্রতা যেন বজায় থাকে সেই জন্যই সমস্ত ধর্মের মানুষকে নিয়ে বৈঠক হয়েছিল। সেখানে সকলের সম্মতিতেই মুসলিমরা জানিয়েছেন, তাঁরা বদ্রীনাথে ইদ পালন করবেন না।” প্রসঙ্গত, বদ্রীনাথ মন্দির সারাইয়ের কাজ করা মুসলিম শ্রমিকদের সঙ্গে বকরি ইদের নামাজ নিয়ে অশান্তি শুরু হয়েছিল ২ বছর আগে। সেই তিক্ত স্মৃতি যেন আবার ফিরে না আসে, সেই জন্যই নমাজ সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত।

[আরও পড়ুন: এজলাসে বসেই QR কোড স্ক্যান করে জয়েন্টের ছাত্রকে ধরলেন হাই কোর্টের বিচারপতি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ