BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আধার-মোবাইল লিঙ্ক নিয়ে এখনই জেনে রাখুন এই ১০ জরুরি তথ্য

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 6, 2017 5:19 am|    Updated: September 26, 2019 12:06 pm

Must know facts about Aadhaar linking with mobile number

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রীয় সরকার প্রত্যেকের মোবাইল নম্বরের সঙ্গে ১২ সংখ্যার আধার নম্বর লিঙ্ক করা বাধ্যতামূলক বলে ঘোষণা করেছে। ২০১৮-র ৬ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এই কাজ সম্পূর্ণ করতে হবে। তারপর যে সমস্ত সিম কার্ডের সঙ্গে আধার নম্বর যুক্ত থাকবে না, সেগুলি একে একে বন্ধ হয়ে যাবে। তবে গ্রাহকদের স্বার্থে ও সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপে সম্প্রতি আধার ও মোবাইল নম্বর লিঙ্কের পদ্ধতি খানিকটা সরল হয়েছে। প্রত্যেকেরই এই নয়া নিয়মগুলি জেনে রাখা দরকার। এই প্রতিবেদনে রইল তার হদিশ।

১. আধারের সঙ্গে মোবাইল নম্বর লিঙ্কের মেয়াদ ফুরোবে ৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮। তারপর যে সব ফোন নম্বরের সঙ্গে আধার লিঙ্ক থাকবে না, সেগুলি বন্ধ হয়ে যাবে।

২. পয়লা ডিসেম্বর থেকে গ্রাহকদের সুবিধার্থে OTP বা ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ডের সাহায্যে মোবাইল নম্বরের সঙ্গে আধার নম্বর লিঙ্কের ব্যবস্থা চালু হবে।  UIDAI এক টুইটে জানিয়েছে, চলতি বছরের পয়লা ডিসেম্বর থেকে এসএমএসে OTP-র আবেদন জানানো যাবে। মিলবে IVRS-এর সুবিধাও।

৩. তবে মোবাইল গ্রাহকরা কোনওভাবেই অনলাইনে আধার লিঙ্ক করতে পারবেন না। কোনও ওয়েবসাইট এমন ভুয়ো দাবি করলে তাদের ফাঁদে পা দিতে নিষেধ করেছে আধারের নিয়ামক কর্তৃপক্ষ UIDAI।

[সরকারি দপ্তরে হাজিরাতেও এবার বাধ্যতামূলক হচ্ছে আধার]

৪. ভেরিফিকেশনের জন্য সঙ্গে টেলিকম সংস্থার স্টোরে আধার কার্ড নিয়ে যাওয়ার কোনও দরকার নেই। শুধুমাত্র আধার নম্বরটি ও মোবাইল সিমটি নিয়ে গেলেই চলবে।

৫. ভারতে চালু রয়েছে এমন যে কোনও ফোন নম্বর দেশের যে কোনও প্রান্তে সংশ্লিষ্ট টেলিকম সংস্থার স্টোরে নিয়ে গেলে রি-ভেরিফিকেশন প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করা যাবে।

৬. সিনিয়র সিটিজেনদের জন্য বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে কেন্দ্র। DoT-র নির্দেশ মোতাবেক, কোনও শারীরিক প্রতিবন্ধী বা বয়স্ক মানুষদের কোথাও যাওয়ার দরকার নেই। টেলিকম সংস্থাগুলিকেই তাঁদের কাছে এসে বা কোনও বিকল্প পদ্ধতি (ওয়েবসাইট বা অন্য কোনও মাধ্যমে) অবলম্বন করে এই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে হবে।

[এবার মোবাইল ও আধার লিঙ্কের মেয়াদ কমল]

৭. এজেন্ট নির্ভর বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম রি-ভেরিফিকেশনের সময় ওই এজেন্ট যেন গ্রাহকের কোনও তথ্য না দেখতে পায়, সেটা নিশ্চিত করতে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। গ্রাহকদের তথ্য কোনওভাবেই কোনও টেলিকম সংস্থার এজেন্টের কাছে জমা থাকবে না। সরাসরি টেলিকম অপারেটরের সেন্ট্রাল সার্ভারে জমা হবে।

৮. আধারের সঙ্গে মোবাইল নম্বর লিঙ্ক করাতে এক পয়সাও খরচ করতে হবে না। কেন্দ্র এই সুযোগ বিনামূল্যে এনেছে প্রত্যেক ভারতীয় নাগরিকের জন্য। কোনও টেলিকম সংস্থার এজেন্ট বা ওয়েবসাইট এর জন্য পয়সা চাইলে তাদের কড়া শাস্তি পেতে হবে।

৯. কারও একাধিক মোবাইল নম্বর থাকলে প্রত্যেক নম্বরের জন্য আলাদা আলাদাভাবে ভেরিফিকেশন করাতে হবে।

১০. কেন্দ্রের এই উদ্যোগ বহু সমালোচিত হলেও সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করতে ও ভুয়ো নথি দেখিয়ে সিম তুলে কোনও দুষ্কৃতীমূলক কাজকর্ম রুখতেই কেন্দ্র এই উদ্যোগ নিয়েছে।

তাহলে আর দেরি না করে এখনই আপনার মোবাইল নম্বর ভেরিফিকেশন করিয়ে নিন। আর এই প্রতিবেদনটি অন্যদের সঙ্গে শেয়ার করে তাঁদেরও এই কাজ করতে উৎসাহ দিন।

[আধার বাধ্যতামূলকের বিরোধিতায় এবার সুপ্রিম কোর্টে মমতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে