BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘৮ লক্ষ চাকরি কোথায়?’, কেজরিওয়ালের বাড়ির সামনে শিক্ষক-ধরনায় যোগ দিয়ে প্রশ্ন সিধুর

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: December 5, 2021 6:04 pm|    Updated: December 5, 2021 6:14 pm

Navjot Singh Sidhu Protests Outside Arvind Kejriwal's House | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাঞ্জাব কংগ্রেসের (Punjab Congress) অন্দরের গোলমাল সরিয়ে রেখে দলের হয়ে মাঠে নামলেন নভজ্যোৎ সিং সিধু (Navjot Singh Sidhu)। পাঞ্জাব বিধানসভা নির্বাচন সামনে রেখে সেই রাজ্যে লাগাতার প্রচার চালাচ্ছে আম আদমি পার্টি (AAP)। সম্প্রতি মোহালিতে গিয়ে সেখানকার শিক্ষকদের প্রতিবাদ ধরনাতেও যোগ দেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal)। তারই পাল্টা দিলেন সিধু। দিল্লিতে কেজরিওয়ালের বাড়ির সামনে দিল্লির পার্শ্ব শিক্ষকদের প্রতিবাদ ধরনায় যোগ দিলেন পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি।

উল্লেখ্য, কেজরিওয়াল যেমন পাঞ্জাবের শিক্ষকদের ধরনায় যোগ দেন, পাশাপাশি দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী মনীশ সিসোদিয়া পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নির (Charanjit Singh Channi) বিধানসভায় একটি স্কুলে যান। সেখানে গিয়ে পাঞ্জাব প্রশাসনের শিক্ষানীতি নিয়ে সমালোচনা করেন। রবিবার দিল্লির শিক্ষকদের ধরনা মঞ্চ থেকে বিক্ষুব্ধ শিক্ষকদের সঙ্গে গলায় গলা মিলিয়ে একাধিক দাবিতে স্লোগান দিলেন সিধু।

শুধু ধরনায় যোগ দেওয়াই নয়, এদিন কেজরিওয়াল সরকারের সমালোচনা করে টুইটও করেন সিধু। লেখেন, “আপ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, চুক্তিবদ্ধ পার্শ্ব শিক্ষকদের সাধারণ শিক্ষকদের হারেই বেতন দেওয়া হবে। তা হয়নি।” সিধু অভিযোগ করেন, “স্কুল কমিটির থেকে আপের সদস্যরা বছরে ৫ লাখ টাকা করে পাচ্ছেন। ওই অর্থ স্কুলের উন্নয়নে কাজে আসতে পারত।”

[আরও পড়ুন: ৬ বছরের শিশুকে যৌন নির্যাতন করে খুন, দেহ মিলল প্রতিবেশীর ট্রাঙ্কে]

আরও একটি টুইটে সিধু অভিযোগ করেন, “তোমাদের ২০১৫ সালের মেনিফেস্টোতে ছিল ৮ লক্ষ চাকরি দেওয়া হবে, দিল্লিতে ২০টি নতুন কলেজ হবে। কোথায় গেল সেই কর্মসংস্থান আর কলেজ? উল্টে দিল্লিতে গত ৫ বছরে পাঁচগুণ বেকারত্ব বেড়েছে।” পার্শ্ব শিক্ষকদের বিক্ষোভের ছবি-সহ আরও একটি টুইটে সিধু লেখেন, “কেজরিওয়ালজি দিল্লির স্কুলের শিক্ষকরা বলছেন, তাঁদের সঙ্গে লেবারের মতো আচরণ করা হচ্ছে। দিন প্রতি পারিশ্রমিক দেওয়া হচ্ছে। তাঁরা ছুটি পাচ্ছেন, বিনা নোটিশে তাঁদের বরখাস্ত করা হচ্ছে।”

গতকালই আপ নেতা রাঘব চাধা অভিযোগ করেছিলেন, পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নির এলাকায় প্রকাশ্যে বালি চুরি হচ্ছে। সেখানে বালি মাফিয়াদের দৌরাত্ম্য প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রাঘব বলেন, সবটাই হচ্ছে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর পৃষ্টপোষকতায়। এরপরেই আজ দিল্লির শিক্ষকদের বিক্ষোভে যোগ দিয়ে আপ তথা কেজরিওয়ালকে পাল্টা চাপে ফেলল পাঞ্জাব কংগ্রেস। দলের হয়ে কাজটা করলেন পাঞ্জাব প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি নভজ্যোৎ সিং সিধু।

[আরও পড়ুন: আগামী বছরের গোড়ায় শিখরে পৌঁছতে পারে করোনার তৃতীয় ঢেউ, আশঙ্কা প্রকাশ বিশেষজ্ঞর]

প্রসঙ্গত, ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং মুখ্যমন্ত্রী থাকার সময় থেকেই দলকে একাধিকবার অস্বস্তিতে ফেলেছেন সিধু। চান্নির সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভাল, এমন নজিরও নেই। তবে এক্ষেত্রে দলের দায়িত্বশীল নেতা হিসেবে কর্তব্যপালন করতে দেখা গেল সিধুকে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে