Advertisement
Advertisement
NEET

নিটের প্রশ্নফাঁস একেবারে স্থানীয় স্তরে, সমাজমাধ্যমে নয়! সুপ্রিম কোর্টে হলফনামা সিবিআইয়ের

শীর্ষ আদালতের কাছে জুলাই মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে কাউন্সেলিং চালুর আনুমতি চেয়েছে কেন্দ্র। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ১৮ জুলাই। 

NEET paper leak localised, not circulated on social media, CBI tells court
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:July 11, 2024 1:01 pm
  • Updated:July 11, 2024 1:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিট তদন্ত নিয়ে এবার সুপ্রিম কোর্টে হলফনামা পেশ করল সিবিআই। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার দাবি, স্নাতক স্তরে ডাক্তারির অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস হয়েছে বটে তবে সেটা স্থানীয় স্তরে। সোশাল মিডিয়ায় ওই প্রশ্নপত্র ছড়িয়ে পড়েনি। ফলে তাঁর প্রভাব ব্যাপক হওয়ার কথা নয়।

বেনিয়মের অভিযোগ ওঠার পর একপ্রকার চাপের মুখে পড়ে নিট কাণ্ডে সিবিআই (CBI) তদন্তের নির্দেশ দেয় কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রক। তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই একাধিক রাজ্য থেকে বেশ কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিহার, ঝাড়খণ্ড, মহারাষ্ট্র, উত্তরপ্রদেশ এবং বাংলাতেও চলেছে তল্লাশি। তবে সিবিআইয়ের হলফনামায় দাবি করা হল, প্রশ্নফাঁস হলেও সেটা ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়েনি। সোশাল মিডিয়ায় প্রকাশ করা হয়নি। এই হলফনামায় বিরোধীরা যে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ করছিল, সেটা খানিকটা লঘু করে দেওয়া হল বলে মনে করা হচ্ছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘যুদ্ধ নয়, পৃথিবীকে বুদ্ধ দিয়েছে ভারত’, অস্ট্রিয়া সফরে বিশ্ব শান্তির বার্তা মোদির]

উল্লেখ্য, কেন্দ্র ইতিমধ্যেই হলফনামা দিয়ে শীর্ষ আদালতকে জানিয়েছে, স্নাতক স্তরে ডাক্তারির অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষা নিটে (NEET) অব‌্যবস্থার অভিযোগের তদন্ত হয়েছে। পোশাকি ভাষায় বলতে গেলে ‘টেকনিক‌্যাল অ‌্যানালিসিস’ হয়েছে, যার দায়িত্বে ছিলেন আইআইটি মাদ্রাজের বিশেষজ্ঞরা। আর সেই বিশ্লেষণের ফল বলছে যে, নিট-২০২৪ পরীক্ষায় সর্বত্র বা বৃহৎ স্তরে বেনিয়ম হয়নি। পাশাপাশি আরও যে একটি অভিযোগ ছিল যে, এই পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের মাধ‌্যমে স্থানীয় বা বিশেষ স্তরে কিছু পরীক্ষার্থীদের সুবিধা করে দেওয়া হয়েছে–সেটিও অমূলক। এমন কিছুই হয়নি। কেন্দ্রের দাবি, নিট পরীক্ষা বাতিল করার কোনও যুক্তি নেই। পুরো পরীক্ষা বাতিল হলে লক্ষ লক্ষ সৎ পরীক্ষার্থী সমস্যায় পড়বেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘অভিশপ্ত’ ছেলের জন্য ‘ইচ্ছেমৃত্যু’ প্রার্থনা, মা-বাবার আর্জি খারিজ করল আদালত]

উল্লেখ্য, নিটে বেনিয়মের অভিযোগে ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে আন্দোলনে নেমেছে বিরোধী শিবির। একাধিক রাজ্যে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন পড়ুয়ারাও। সরকারও একপ্রকার মেনে নিয়েছিল নিয়ম বহির্ভূতভাবে কিছু পড়ুয়াকে গ্রেস মার্কস দেওয়া হয়েছে। পরে সেটা বাতিলও করা হয়। ইতিমধ্যেই অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে কাউন্সিলিং। বৃহস্পতিবার শীর্ষ আদালতের কাছে জুলাই মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে কাউন্সেলিং চালুর আনুমতি চেয়েছে কেন্দ্র। তবে এনটিএ’র দেওয়া হলফনামা সব পক্ষের কাছে না পৌছনোয় এদিন মামলা স্থগিত করে দেওয়া হয়েছে। মামলার পরবর্তী শুনানি আগামী ১৮ জুলাই। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ