BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এনসিপির সঙ্গে কোনওদিন জোট নয়, ভাইরাল ফড়ণবিসের পুরনো টুইট

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: November 23, 2019 5:40 pm|    Updated: November 23, 2019 5:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কথায় আছে, রাজনীতিতে চিরস্থায়ী বলে কিছু হয় না। অন্তত ভারতীয় রাজনীতিতে এই বাক্যটি চিরাচরিত। শনিবার সাতসকালে মহারাষ্ট্রে ‘মহানাটকের’ পর আরও বেশি করে এই প্রবাদ সবার মুখে মুখে ফিরছে। কারণ যে দেবেন্দ্র ফড়ণবিস এনসিপির সমর্থন আছে দাবি তুলে দ্বিতীয়বার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী শপথ নিলেন, ৫ বছর আগেই তিনিই বলেছিলেন, শরদ পওয়ারের দলের সঙ্গে কখনও জোট করবে না বিজেপি। এনসিপিকে চরম দুর্নীতিগ্রস্ত বলে কটাক্ষ করেছিলেন তিনি। আর সেই ফড়ণবিসই কিনা এনসিপির অজিত পওয়ারের সঙ্গে হাত মেলালেন।

এবছর মহারাষ্ট্রে বিধানসভা নির্বাচনের আগে গোটা রাজ্যে বিভিন্ন জায়গায় সভা করেছেন ফড়ণবিস। আর সব জনসভায় তাঁর আক্রমণের নিশানায় ছিল এনসিপি। মূলত অজিত পওয়ারকেই নিশানা করতেন তিনি। মন্ত্রী থাকাকালীন অজিতের বিরুদ্ধে ২০ হাজার কোটি টাকার সেচ দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। সেই অজিত পওয়ারই ‘মহানাটকের’ পুরোধা হিসাবে ফড়ণবিসের সঙ্গে হাত মেলালেন এবং উপমুখ্যমন্ত্রী পদে শপথও নিলেন। মহারাষ্ট্রে এমন সময় নাটকীয় পটপরিবর্তন হল যখন শিব সেনা-এনসিপি-কংগ্রেস সরকার গঠনের জন্য একদম তৈরি ছিল। ফড়ণবিসও এনসিপিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সরকার গঠনের জন্য সমর্থন দেওয়ার জন্য। অথচ এই ফড়ণবিসই পাঁচ বছর আগের টুইটে তিনি এনসিপিকে চরম আক্রমণ করেছিলেন।

এনসিপির মুখোশ খুলে দেওয়ার কথা তখন বলেছিলেন ফড়ণবিস। তবে সেদিনের পর অনেক জল বয়েছে নর্মদা দিয়ে। গদির জন্য শরদ পওয়ারকে অন্ধকারে রেখে বিজেপির হাত ধরেছেন অজিত পওয়ার। দল ভাঙিয়ে বেশ কিছু অনুগামী বিধায়কের সমর্থন জোগাড় করেছেন। তবে বিধানসভায় আস্থা ভোটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের বিষয় এখনও বাকি। কিন্তু তার আগে ফড়ণবিসের পাঁচ বছর আগের টুইট আবার ভেসে উঠেছে রাজনীতির ভারচুয়াল জগতে। যেখানে নেটিজেনরা সেদিনের মন্তব্যের জন্য ফড়ণবিসকে তুলোধোনা করছেন। নাটক এখনও অনেক বাকি মহারাষ্ট্রে। সে জন্য বলতেই হয়, সত্য সেলুকাস বিচিত্র এ দেশ!

[আরও পড়ুন: মহারাষ্ট্রের সরকার গঠনে মহানাটকীয় মোড়, ফের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ দেবেন্দ্র ফড়ণবিসের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement