BREAKING NEWS

৬ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘এবার রোহিঙ্গাদের তাড়ানোর পালা’, CAA নিয়ে বিক্ষোভের মাঝেই হুমকি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: January 4, 2020 7:13 pm|    Updated: January 4, 2020 7:13 pm

Next move on deportation of Rohingya refugees: Jitendra Singh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাশ হওয়ার পরেই গন্ডগোল শুরু হয়েছিল দেশের বিভিন্ন জায়গায়। বর্তমানে তার রেশ কিছুটা শান্ত হয়েছে। আর ঠিক সেই মুহূর্তেই কেন্দ্রীয় সরকারের পরবর্তী পদক্ষেপ ভারত থেকে রোহিঙ্গাদের তাড়ানো বলেই ঘোষণা করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং। ভারতের সংসদে পাশ হওয়া নতুন আইন অনুযায়ী, তারা এখানে থাকতে পারবে না বলেই পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন।

শ্রীনগরে সংশোধিত নাগরকিত্ব আইন (CAA) সংক্রান্ত বিষয়ে সরকারি কর্মীদের নিয়ে তিনদিনের একটি সম্মেলন হচ্ছে। শুক্রবার সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জিতেন্দ্র সিং বলেন, ‘মায়ানমার থেকে পালিয়ে জম্মুতে অনেক রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে। নতুন আইন অনুযায়ী, তাঁদের এই দেশে জায়গা দেওয়া যাবে না। সংসদে যে মুহূর্তে এই বিলটি পাশ হয়েছে তখন থেকেই জম্মু ও কাশ্মীরে এটা চালু হয়ে গিয়েছে। ফলে বিষয়টি নিয়ে নতুন করে ভাবনাচিন্তা করার কোনও সময় নেই। তার বদলে এখন দেশজুড়ে ঝাড়াই ও বাছাইয়ের কাজ চলবে। তারপরই ভারত থেকে তাড়িয়ে দেওয়া হবে রোহিঙ্গাদের। এই বিষয়ে কোনও আপত্তি ধোপে টিকবে না।’

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে আক্রান্তদের পাশে প্রিয়াঙ্কা, পুলিশি অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব কংগ্রেস নেত্রী]

 

নতুন আইনের ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, ‘আফগানিস্তান, পাকিস্তান ও বাংলাদেশে ধর্মীয় কারণে অত্যাচারের শিকার হওয়া ছয়টি সম্প্রদায়কে ভারতে আশ্রয় দেওয়া হবে। এই বিষয়ে একটি তালিকা তৈরির কাজও শুরু হয়েছে। তাতে কোনওভাবে জায়গা পাবে না মায়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গারা। ফলে দেশ থেকে তাদের তাড়িয়ে দেওয়া ছাড়া আর কোনও রাস্তা নেই। তাছাড়া একটা জিনিস আমার বোধগম্য হচ্ছে না যে প্রথম থেকেই রোহিঙ্গাদের এই দেশে আশ্রয় না দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। তাতে সিলমোহর দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্টও। তারপরও কাদের মদতে বাংলা ও বিহার পেরিয়ে ওই রোহিঙ্গারা জম্মু এসে পৌঁছাল? টিকিট-সহ অন্য খরচ কে বা কারা দিল?’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে