২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমবার ১০ হাজারের শৃঙ্গে নিফটি। মঙ্গলবার বাজার খোলার পর তৈরি হয় এই নজির। শুরুতেই ৪৪ পয়েন্ট বেড়ে ১০,০১০ পয়েন্টে পৌঁছে যায় নিফটি। বৃদ্ধির পরিমাণ ছিল ০.২০ শতাংশ। এদিন সেনসেক্সের উত্থানও চোখে পড়ে। সূচক বাড়ে ১০৪ পয়েন্ট।

[বন্যায় বিধ্বস্ত গুজরাট, ত্রাণশিবিরেই ঠাঁই ২৫,০০০ মানুষের]

৩২ হাজারের ঘরে আগেই পৌঁছে গিয়েছিল সেনসেক্স। যা দেখে শেয়ার বিশেষজ্ঞদের ধারণা ছিল সেনসেক্সের মতো দ্রুত ম্যাজিক ফিগার ১০ হাজারের অঙ্কে পৌঁছাবে নিফটি।  সোমবার এক সময় ৯৯৮২ পয়েন্টে উঠে থেমেছিল। তখনই বোঝা গিয়েছিল শৃঙ্গ ছোঁয়া সময়ের অপেক্ষা। হলও তাই। মঙ্গলবার বাজার খুলতেই প্রথমবার ১০ হাজারের ঘরে পৌঁছয় নিফটি। একদিনের মধ্যে নিফটির ৪৪ পয়েন্ট বাড়ে। অন্যদিকে সেনসেক্সের উর্ধ্বগতিও চোখে পড়েছে। এদিন সেনসেক্স ১০৪ পয়েন্ট বেড়ে ৩২,৩৭৪-এ পৌঁছয়। এটাও রেকর্ড।

[ডোকলাম নিয়ে তীব্র টানাপোড়েন, চিনা প্রেসিডেন্টকে মোদির শুভেচ্ছায় জল্পনা]

সোমবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ, আইটিসি, টিসিএস, হিরো মোটা কর্প, ভারতী এয়ারটেল, টাটা স্টিল এবং এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের নিট মুনাফা বাড়ে প্রায় ২০ শতাংশ। পাশাপাশি দেশের আর্থিক বৃদ্ধি নিয়ে ইতিবাচক মন্তব্য করে ইন্টারন্যাশনাল মানিটারি ফান্ড। জোড়া প্রভাবে বাজার এতটা তেজি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে দেশের শেয়ার বাজার চাঙ্গা হলেও বিশ্বের পরিস্থিতি মিশ্র। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, গত কয়েক মাসে দেশে বেশ কিছু সমস্যা থাকলেও এর প্রভাব সেভাবে বাজারে পড়েনি। পাশাপাশি এই সময়ে ব্যাঙ্কগুলির আর্থিক কাঠামো আরও মজবুত হয়েছে। এর ভিত্তিতে তাদের ধারণা বাজারের এই চাঙ্গাভাব আরও কয়েকদিন থাকবে। জিএসটি চালু হওয়ার জন্য বাজারের ধারাবাহিকতা রয়েছে বলে কেউ কেউ মনে করছেন। ইতিবাচক অনেক কিছু পেলেও উদ্বেগও রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা মনে করেন দেশের কয়েক জায়গায় অতি বর্ষণ চিন্তা বাড়াতে পারে। তাদের নজরে রয়েছে চিনের সঙ্গে সম্পর্কের টানাপোড়েন। চিনের সঙ্গে সম্পর্ক আরও অবনতি হলে তার প্রভাব শেয়ার বাজারে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং