BREAKING NEWS

১৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

আইনি জটিলতা, ২২ জানুয়ারি ফাঁসি হচ্ছে না নির্ভয়ার চার ধর্ষকের

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 16, 2020 3:56 pm|    Updated: January 16, 2020 3:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শেষপর্যন্ত জল্পনাই সত্যি হল। আইনি জটিলতায় ২২ জানুয়ারি নির্ভয়ার চার ধর্ষকের ফাঁসি হচ্ছে না। কবে হবে ফাঁসি, সে সম্পর্কেও কোনও নির্দিষ্ট তথ্য মেলেনি। উল্টে তিহার জেল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে রিপোর্ট চাইল পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। ফাঁসি নিয়ে জেলের ম্যানুয়ালে কী বলা রয়েছে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য চেয়েছে আদালত। সূত্রের খবর, জেলের তরফে দিল্লি প্রশাসনের কাছে ফাঁসির নতুন তারিখ জানতে চাওয়া হয়েছে। এদিকে ফাঁসি প্রক্রিয়া বিলম্ব নিয়ে রীতিমতো তরজা শুরু হয়ে গিয়েছে।

কেন ২২ জানুয়ারি ফাঁসি হবে না?  জানা গিয়েছে, মুকেশ সিং রাষ্ট্র্পতির কাছে প্রাণভিক্ষার আরজি জানিয়েছে। সেই আরজি এখনও খারিজ হয়নি। এদিকে তিহার জেলের নিয়ম অনুযায়ী, কোনও আসামীর দয়াভিক্ষার সমস্ত রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরও ১৪দিন সময় দিতে হবে। সেই নিয়ম মানলে ২২ জানুয়ারি সকাল সাতটায় ফাঁসি দেওয়া সম্ভব হবে না। আবার দোষীদের মধ্যে পবন ও অক্ষয় এখনও কিউরেটিভ পিটিশন দাখিল করেনি। তারা যদি এই আরজি দাখিল করে, তবে ফাঁসির প্রক্রিয়া আরও পিছিয়ে যাবে। দিল্লি সরকার সূত্রে খবর, মুকেশের দয়াভিক্ষার আরজি খারিজ করার সুপারিশ করেছে কেজরিওয়াল সরকার। সেই আরজি দিল্লির উপ-রাজ্যপালের কাছে পাঠিয়েও দেওয়া হয়েছে। তিনিও মুকেশের আরজি খারিজ করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তা রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে পাঠানো হয়েছে কি না, তা এখনও জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন : দিল্লি সরকারের গাফিলতিতে নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসি পিছিয়েছে, অভিযোগ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

এদিকে দিল্লি হাই কোর্টের কথা মতো বৃহস্পতিবার পাতিয়ালা হাউস কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মুকেশের আইনজীবী। সেখানে বিচারক আইনি জটিলতার কথা মেনে নিয়েছে। পাশাপাশি তিহার কর্তৃপক্ষের কাছে ফাঁসির নিয়মকানুন চেয়ে পাঠানো হয়েছে। তবে চার ধর্ষকের ফাঁসির দিনক্ষণ ক্রমাগত পিছতে থাকায় ক্ষুব্ধ নির্ভয়ার মা-ও।  

An Images
An Images
An Images An Images