Advertisement
Advertisement
Nitish Kumar

INDIA জোটের বৈঠকে মমতাকে প্রাধান্য রাহুলের, মানতে না পেরেই জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নীতীশের!

রেগে জোটের বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে গিয়েছিলেন নীতীশ।

Nitish Kumar decided to leave INDIA alliance after Mamata Banerjee's name was proposed as coordinator | Sangbad Pratidin
Published by: Anwesha Adhikary
  • Posted:January 30, 2024 9:25 am
  • Updated:February 29, 2024 6:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কো-অর্ডিনেটরের নাম স্থির করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে! রাহুল গান্ধীর সেই কথায় রেগে গিয়ে জানুয়ারির প্রথমেই ইন্ডিয়া জোট (INDIA Alliance) ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলেন নীতীশ কুমার। তাই জোটের গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের মাঝপথে বেরিয়ে আসেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী। সূত্রের খবর, ইন্ডিয়া জোটের আহ্বায়ক হিসাবে নীতীশের নাম প্রস্তাব করা সত্ত্বেও তাতে রাজি হননি তিনি। রেগে গিয়ে নির্ধারিত সময়ের ১০ মিনিট আগেই ভিডিও বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান বিহারের মুখ্যমন্ত্রী।

গত ১৩ জানুয়ারি ভিডিও বৈঠকে বসেন ইন্ডিয়া জোটের নেতারা। সেখানে হাজির ছিলেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ওই বৈঠকেই ইন্ডিয়া জোটের সঙ্গে নীতীশের (Nitish Kumar) ফাটল একেবারে স্পষ্ট হয়ে যায়। কারণ জোটের কোঅর্ডিনেটর কাকে করা হবে সেই নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনা করতে চেয়েছিলেন রাহুল। তাতেই নীতীশের গোঁসা হয়। তার পরে ইন্ডিয়া জোটের কনভেনার হিসাবে তাঁর নাম প্রস্তাব করা হলেও তাতে সায় দেননি নীতীশ। উলটে বলেন, এই পদটা লালুপ্রসাদ যাদবকেই বরং দিয়ে দেওয়া হোক।

Advertisement

[আরও পড়ুন: শহরের রাস্তায় আর দেখা মিলবে না ভিখারির, উদ্যোগ কেন্দ্রের]

সূত্রের খবর, বৈঠকে এই আলোচনার পরেই জোট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন নীতীশ। ভিডিও কনফারেন্স শেষ হওয়ার অন্তত ১০ মিনিট আগেই তিনি বেরিয়ে যান। তার পরে ইন্ডিয়া জোটের কারোওর সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ হয়েছে কিনা, জানা নেই। উল্লেখ্য, আগের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়গের নাম প্রস্তাব করেছিলেন মমতা। সেই নিয়েও ক্ষুব্ধ হয়েছিলেন নীতীশ। পরে অবশ্য তাঁকে ফোন করে এই বিষয় নিয়ে কথা বলেন রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)।

Advertisement

জোট বদলের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরেই ফের বিজেপির সঙ্গে যোগাযোগ করেন নীতীশ। ২৮ জানুয়ারি এনডিএতে ফিরে ফের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন। তবে বিহারের রাজনীতিতে ‘পালটু কুমার’ বলে পরিচিত নীতীশ আর যেন জোট বদলের পথে হাঁটতে না পারেন, সেই জন্য তাঁর মন্ত্রিসভায় দুজনকে উপমুখ্যমন্ত্রী হিসাবে রেখেছে বিজেপি।

[আরও পড়ুন: Oyoতে ডেকে মতের অমিল, গুলি করে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার প্রেমিকাকে খুন!]

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ