১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘রসিকতার জন্য সাফাইয়ের দরকার নেই’, আদালত অবমাননার অভিযোগে ক্ষমা চাইবেন না কুণাল কামরা

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 29, 2021 1:35 pm|    Updated: January 29, 2021 1:35 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তাঁর বিরুদ্ধে রয়েছে শীর্ষ আদালতকে (Supreme Court) অবমাননা করার অভিযোগ। কিন্তু স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান কুণাল কামরা (Kunal Kamra) জানিয়ে দিলেন, তিনি ক্ষমা চাইবেন না। নিজের হলফনামায় তাঁর যুক্তি, জোকস ‘বাস্তব’ নয়। আর তিনি তেমন দাবিও করছেন না। জোকসের পক্ষে কোনও সাফাই দেওয়ারও প্রয়োজন নেই বলে জানিয়েছেন তিনি। কুণালের দাবি, জোকস তৈরিই হয় কমেডিয়ানের ধারণার উপরে ভিত্তি করে।

সুপ্রিম কোর্টে সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীর (Arnab Goswami) জামিন মঞ্জুর প্রসঙ্গে একাধিক টুইট করেছিলেন তিনি। তাঁর সেই মন্তব্য শীর্ষ আদালতের মর্যাদা খর্ব করছে বলে অভিযোগ। তাই তাঁর বিরুদ্ধে আদালত আবমাননার মামলা দায়ের হয়। সেই সময়ই কুণাল জানিয়ে দিয়েছিলেন, “কোনও আইনজীবীর প্রয়োজন নেই, কোনও ক্ষমা চাওয়া নয়, কোনও জরিমানা নয়, কোনও জায়গার অপচয় নয়।” এবারও সেই সুরই বজায় রেখে তিনি জানালেন, ক্ষমা তিনি চাইবেন না।

[আরও পড়ুন: ‘সাধারণতন্ত্র দিবসে হিংসা, তেরঙ্গার অপমান দুর্ভাগ্যজনক’, কার্যত বিরোধীশূন্য সংসদে বললেন রাষ্ট্রপতি ]

তাঁর হলফনামায় কুণাল এও দাবি করেছেন, ”আমার টুইট আদালতের প্রতি মানুষের বিশ্বাসকে খর্ব করার উদ্দেশ্যে করা নয়।” সেই সঙ্গে তাঁর আরও দাবি, যদি সুপ্রিম কোর্টের মনে হয় তিনি তাঁর সীমা অতিক্রম করেছেন এবং তাঁর ইন্টারনেট চিরকালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া উচিত, তাহলে তিনিও কাশ্মীরের লোকদের মতো ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানাবেন সকলকে। প্রসঙ্গত, সংবিধানের ৩৭০ ধারা তুলে নেওয়ার পর থেকে কাশ্মীরে দীর্ঘদিন ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ ছিল। নিজের হলফনামায় সেই প্রসঙ্গও তুলে আনলেন কুণাল।

ঠিক কোন টুইটের জন্য অভিযুক্ত জনপ্রিয় এই স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান? গত বছর আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার এক মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছিলেন রিপাবলিক টিভির এডিটর-ইন-চিফ অর্ণব গোস্বামী। আটদিন পরে জেল থেকে মুক্তি পান তিনি। রায়ের বিরোধিতা করতে গিয়ে বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়েরই নিন্দা করে বসেন স্ট্যান্ড আপ কমেডিয়ান কুণাল। অর্ণব জামিন পেতেই কমেডিয়ান কুণাল টুইটারে লেখেন, “ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় বিমান সেবিকা, তিনি ফার্স্ট ক্লাসের যাত্রীদের শ্যাম্পেন পরিবেশন করছেন। অথচ আমজনতা জানেন না, তাঁরা আদৌ সেই বিমানে কোনওদিন উঠতে পারবেন কি না।” এই টুইটের পরই তাঁর বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ ওঠে।

[আরও পড়ুন: ‘আলোচনার মাধ্যমে উঠে আসুক অমৃত’, দশকের প্রথম বাজেটের আগে আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে