BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সেনাকে পাথর ছুঁড়লে সরকারি চাকরি,পাসপোর্ট নয়! ‘দেশদ্রোহী’ দমনে কড়া Kashmir প্রশাসন

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 1, 2021 10:50 am|    Updated: August 1, 2021 1:40 pm

No govt jobs, no passport clearance: Kashmir Crackdown on stone Pelters | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদ এবং বিচ্ছিন্নতাবাদ দমনে বড়সড় পদক্ষেপ করল প্রশাসন। উপত্যকার মাটিতে যাতে কোনওভাবেই ভারত-বিরোধী শক্তি মাথাচাড়া না দিতে পারে, তা নিশ্চিত করতে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সমস্ত সরকারি সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কাশ্মীরের লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা (Manoj Sinha)। যা কিনা ৩৭০ ধারা (Article 370) বাতিল এবং রাজ্য থেকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করার পর ভারত বিরোধীদের দমনে উপত্যকার প্রশাসনের সবচেয়ে বড় সিদ্ধান্ত।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের দাবি অনুযায়ী, রবিবার কাশ্মীর (Kashmir) প্রশাসনের তরফ থেকে এক নির্দেশে বলা হয়েছে, যারা যারা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটির শান্তিবিঘ্নিত করার চেষ্টা করবে, সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করবে বা নিরাপত্তারক্ষীদের লক্ষ্য করবে তাদের কোনওরকম সরকারি চাকরিতে নিয়োগ করা হবে না। শুধু তাই নয়, তারা সরকারি সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবে। এমনকী পাসপোর্ট তৈরিরও ছাড়পত্র পাবে না। পাসপোর্টে ছাড়পত্র এবং সরকারি চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্ত পুলিশ রেকর্ডের পাশাপাশি ডিজিটাল প্রমাণপত্রও খতিয়ে দেখা হবে। এমনিতে কিছুদিন আগে থেকেই সিআইডি ছাড়পত্র না দিলে কোনও ব্যক্তিকেই সরকারি পদে নিয়োগ করে না কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলটির প্রশাসন। এবার সেই নিয়মে আরও কড়াকড়ি করা হবে। প্রশাসন অর্থাৎ সরকারের স্পষ্ট ইঙ্গিত, ভারতে থেকে-খেয়ে ভারত সরকারের বিরোধিতা করা যাবে না।

[আরও পড়ুন: সংসদের বাদল অধিবেশনে শাসক-বিরোধী দ্বন্দ্বে নষ্ট ১৩৩ কোটি! দাবি কেন্দ্রের]

প্রসঙ্গত, ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রায় দু’বছর পরে কাশ্মীরে নির্বাচন করাতে উদ্যোগী হয়েছে প্রশাসন। কিছুদিন আগেই কাশ্মীরের ৮টি স্বীকৃত রাজনৈতিক দলের ১৪ জন প্রথম সারির নেতাকে নিয়ে সর্বদল বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। উপস্থিত ছিলেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের ফারুখ এবং ওমর আবদুল্লাহ, PDP’র মেহবুবা মুফতি, কংগ্রেসের গুলাম নবি আজাদ-সহ কাশ্মীরের তাবড় শীর্ষনেতারা। কাশ্মীরি নেতাদের দিল্লি ডেকে পাঠিয়ে তাঁদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা করে কাশ্মীরে নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরুর বন্দোবস্ত এবং দ্রুত উপত্যকার পূর্ণরাজ্যের মর্যাদা ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন মোদি। জানানো হয়েছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই রাজ্যের মর্যাদা ফেরানো হবে। আপাতত পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার দিকেই মন দিচ্ছে কেন্দ্র। সেকারণেই এভাবে বিচ্ছিন্নতাবাদ দমের উদ্যোগ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে