১৯ শ্রাবণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এবছর অভিন্ন মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা স্থগিত

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 20, 2016 3:20 pm|    Updated: May 20, 2016 3:20 pm

No Single Medical Entrance Exam This Year, Cabinet Postpones NEET

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অর্ডিন্যান্স জারি করে জাতীয় অভিন্ন মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা এক বছর পিছিয়ে দিল কেন্দ্র। ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এন্ট্রান্স টেস্ট বা মেডিক্যালের অভিন্ন সর্বভারতীয় পরীক্ষা এবছরের জন্য স্থগিত রাখল কেন্দ্রীয় সরকার। দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়ে শুক্রবার সকালে জাতীয় অভিন্ন মেডিক্যাল প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়ে বৈঠকে বসেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সদস্যরা। আর তারপরই ওই পরীক্ষা আগামী বছর পর্যন্ত স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে অর্ডিন্যান্স আনার বিষয়ে সিলমোহর দেয় মন্ত্রিসভা।

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট এক রায়ে জানায়, রাজ্যগুলি মেডিক্যালে জয়েন্ট পরীক্ষা নিতে পারবে না। বেসরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও রাজ্যগুলি নিজেদের মত করে যে পরীক্ষা নিত, তা মানা হবে না। ওই সব পরীক্ষা ঘিরে একের পর এক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানায় আদালত। পরীক্ষার্থীদের অভিন্ন সর্বভারতীয় পরীক্ষায় বসতে হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। রাজ্যগুলির তরফে পৃথক মেডিক্যাল জয়েন্টের আবেদন জানানো হয় শীর্ষ আদালতের কাছে। পরীক্ষার্থীদের কথা ভেবে চলতি বছরের জন্য সেই দাবিতে সায় দেয় কেন্দ্রীয় সরকার ও মেডিক্যাল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া। রাজ্যগুলির তরফে নিজেদের এই আর্জি বিবেচনার আবেদন জানানো হয় সুপ্রিম কোর্টেও। কিন্তু, তা খারিজ করে দেয় আদালত।

কিন্তু আচমকা পরীক্ষার ধাঁচ পুরো বদলে যাওয়ায় সমস্যায় পড়েন বিভিন্ন রাজ্যের মেডিক্যাল প্রবেশিকার পরীক্ষা দিতে প্রস্তুতি নেওয়া ছাত্রছাত্রীরা। মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, তামিলনাড়ুর মতো বেশ কয়েকটি রাজ্য কেন্দ্রকে অনুরোধ করে, পড়ুয়াদের স্বার্থের কথা মাথায় রেখে এই অভিন্ন মেডিক্যাল প্রবেশিকা এক বছরের জন্য স্থগিত রাখা হোক। এই ডামাডোলের মধ্যেই চলতি মাসের ৬ তারিখ প্রথম পর্যায়ের প্রবেশিকা পরীক্ষায় বসেন প্রায় সাড়ে ছ’লাখ ছাত্রছাত্রী। ২৪ জুলাই পরবর্তী পর্যায়ের পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জে পি নাড্ডার সঙ্গে দফায় দফায় ওই রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীদের বৈঠকে তাঁরা অনুরোধ করেন, আচমকা পরীক্ষার ধরন বদলে যাওয়ায় ছাত্রছাত্রীরা সমস্যায় পড়বেন। শুধু তাই নয়, বিরোধী দলগুলিও কেন্দ্রকে একই দাবি জানায়। আজ সর্বসম্মতিতেই অর্ডিন্যান্স জারি করে পরীক্ষা স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement