৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মানবিক, ভাড়াটেদের ভাড়া মকুবের পর ২৫ কিলো করে চাল দিলেন বাড়ির মালিক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 15, 2020 8:11 pm|    Updated: May 15, 2020 8:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দীর্ঘদিন ধরে লকডাউন (Lock down) চলছে ভারতে। এর ফল প্রচণ্ড সমস্যায় পড়েছেন প্রান্তিক শ্রেণীর মানুষ ও পরিযায়ী শ্রমিকরা। এই পরিস্থিতির মধ্যে বাড়িতে থাকা ১২ জন ভাড়াটের মে মাসের ভাড়া মকুব করলেন ওড়িশার এক ব্যক্তি। শুধু তাই নয়, প্রতিটি ভাড়াটেকে ২৫ কিলো করে চালও নিয়ে দিয়েছেন তিনি। অভিনব এই ঘটনাটি ঘটেছে ওড়িশার উপকূলবর্তী জেলা গঞ্জামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, গঞ্জাম জেলার ব্রহ্মপুরের সোমনাথ নগরের বাসিন্দা মুরলীমোহন আচার্য্যের বাড়িতে ১২ জন ভাড়াটে আছেন। তাঁদের মধ্যে কেউ রাস্তার ধারে ফাস্টফুডের দোকান চালান তো কারোর ছোটোখাট ব্যবসা রয়েছে। অন্য সময়ে কোনওরকম ভাবে তাঁরা সংসার চালাতে পারলেও প্রায় দুমাস ধরে চলা লকডাউনের ফলে পরিস্থিতি খুব সঙ্গীন হয়ে উঠেছে। বাড়ির ভাড়া দেওয়া তো দূরঅস্ত! স্ত্রী ও সন্তানদের মুখে খাবার তুলে দিতেই সমস্যা হচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে তাঁদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন মুরলী। আর সেই মতো মে মাসের বাড়িভাড়া মকুব করার সঙ্গে সঙ্গে প্রতিটি পরিবারকে ২৫ কিলো করে চালও দেন।

[আরও পড়ুন: বিয়ের অনুষ্ঠানে বাতিল মদ, লকডাউনে নয়া নির্দেশিকা কর্ণাটক সরকারের ]

এপ্রসঙ্গে মুরলী বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে মার্চের শেষদিক থেকে দেশজুড়ে লকডাউন জারি হয়। এর ফলে ১২ জন ভাড়াটের ব্যবসা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তাঁরা প্রচণ্ড অর্থনৈতিক সমস্যার মধ্যে দিন কাটাচ্ছিলেন। পরিস্থিতি এমন জায়গায় যায় যে তিনজন ভাড়াটে পরিবার নিয়ে বাড়ি ছেড়ে নিজেদের গ্রামে ফিরে যান। এরপরই অন্য ভাড়াটেরা আমাকে বাড়িভাড়া মকুব করার আবেদন করেন। পরিস্থিতি বিচার করে তাঁদের আবেদন মেনে নেওয়ার পাশাপাশি ২৫ কিলো করে চাল দিয়েছে আমি। যাতে এই অবস্থার মধ্যে তাঁরা অন্তত জীবন বাঁচাতে পারে।’

এই ঘটনার কথা শোনার পর মুরলী মোহন আচার্য্যের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ব্রহ্মপুরের সাব কালেক্টর শিন্ডে দত্তাত্তেয় বাসুদেব। অন্য বাড়িওয়ালাদেরও মুরলীর পথ অনুসরণ করার আবেদন জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরাই আমাদের সমাজকে পুরো বদলে দিতে পারি। যদি আচার্য্য যা করেছেন সেই কাজ এক শতাংশ বাড়ির মালিকরা করতে পারেন।’

[আরও পড়ুন: রেলযাত্রীদের মন ভাল করতে গান ধরলেন পুলিশ অফিসার, গাইলেন ‘গুলাবি আঁখে’]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement