BREAKING NEWS

২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অবিলম্বে CAA প্রত্যাহার করুন, সোনিয়ার নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতির কাছে দরবার বিরোধীদের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: December 17, 2019 7:29 pm|    Updated: December 17, 2019 7:29 pm

Opposition parties met President, urges withdrawal of CAA

দীপাঞ্জন মণ্ডল, নয়াদিল্লি: নাগরিকত্ব (সংশোধিত) আইন ঘিরে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি দেশের উত্তর থেকে দক্ষিণ। পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধে রণক্ষেত্র রাজধানী দিল্লি। বাংলার একাধিক জেলায় অশান্তি-বিক্ষোভ। অসম-সহ উত্তর-পূর্ব ভারতও উত্তাল আইনের প্রতিবাদে। এই পরিস্থিতিতে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হলেন বিরোধী দলের প্রতিনিধিরা। মঙ্গলবার বিকেলে কংগ্রেসের কার্যকরী সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতি ভবনে যান তৃণমূল-ডিএমকে-বাম-আরজেডির প্রতিনিধিরা। অবিলম্বে এই আইন প্রত্যাহার না করা হলে দেশের পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে বলে বিরোধীরা দরবার করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে। পরে রাষ্ট্রপতি ভবনের বাইরে এসে সোনিয়া জানান, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ করার আশ্বাস দিয়েছেন রামনাথ কোবিন্দ।

উল্লেখ্য, এদিন বিকেলে কংগ্রেসের কপিল সিব্বল, একে অ্যান্টনি, আনন্দ শর্মা, তৃণমূলের ডেরেক ও’ব্রায়েন, সিপিএমের সীতারাম ইয়েচুরি, সিপিআইয়ের ডি রাজা, আরজেডির মনোজকুমার ঝা সোনিয়া গান্ধীরা সঙ্গে রাষ্ট্রপতি ভবনে যান। সোনিয়া এদিন রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে বেরিয়ে এসে বলেন, ‘এই মুহূর্তে দেশের পরিস্থিতি অত্যন্ত গুরুতর, উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে তা দেশের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে। রাজধানী দিল্লিও বাদ যায়নি। রাষ্ট্রপতিকে এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার আরজি জানিয়েছি আমরা।’ তিনি আরও বলেন, ‘জামিয়ার ঘটনা গুরুত্ব দিয়ে দেখতে বলেছি ওনাকে। মহিলা হস্টেলে ঢুকেছে পুলিশ। প্রতিবাদ করা সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নিন্দনীয়।’ ডেরেক ও’ব্রায়েন এদিন বলেন, ‘রাষ্ট্রপতিকে অনুরোধ করেছি, নাগরিকত্ব আইন তুলে নেওয়ার জন্য তিনি যেন অবিলম্বে সরকারকে নির্দেশ দেন।’

প্রসঙ্গত, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে এদিন ফের উত্তপ্ত হয় দিল্লি। জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলনের পর এবার সিলমপুর ও জাফরাবাদে CAA’র বিরোধিতায় বিক্ষোভ শুরু করে জনতা। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। তার ফলে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় এলাকা। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের খণ্ডযুদ্ধ বেঁধে যায়। ঘটনায় জখম হয়েছেন ২ পুলিশকর্মী। বিক্ষোভকারীদের মধ্যেও অনেকে আহত হয়েছেন বলে খবর।

[আরও পড়ুন: স্কুলের অনুষ্ঠানে বাবরি ধ্বংসের নাটক! RSS নেতা-সহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে