৩১ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৩১ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহাকাশ বিজ্ঞানে দেশে নজিরবিহীন সাফল্য৷ পৃথিবীর কক্ষপথে ঘুরে কৃত্রিম উপগ্রহ ধ্বংস করা ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক সাফল্য৷ এই প্রযুক্তি হাতে পেয়ে মহাকাশযুদ্ধেও এবার অনেক ধাপ এগিয়ে গেল দেশ৷ আমেরিকা, রাশিয়া, চিনের সঙ্গে একই আসনে বসল ভারত৷ বুধবারের বারবেলায় নরেন্দ্র মোদির এই ঘোষণার পর থেকেই রাজনৈতিক মহলে তৈরি হয়েছে বিতর্ক৷ নির্বাচনী আচরণ বিধি লাগু থাকাকালীন এমন ঘোষণা কীভাবে করা হল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে বিরোধী দলগুলি৷

                             আরও পড়ুন : মহাকাশে স্যাটেলাইট ধ্বংস করল ভারত, সফল উৎক্ষেপণ ‘এ স্যাট’ মিসাইলের ]

‘মিশন শক্তি’ নামের এই গবেষণায় সাফল্যের জন্য ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানিয়েও টুইটারে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য, ‘জরুরি ভিত্তিতে এমন ঘোষণা করার দরকার ছিল না৷ নিজের ভোটতরী ডুবছে, বুঝতে পেরে এই পদক্ষেপ৷ বিজ্ঞানীদের সাফল্যের ফায়দা তোলার চেষ্টা৷ এটা নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করছে৷ আমরা নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দায়ের করছি৷’ একইসুরে কথা বলেছেন সিপিআইয়ের ডি রাজা৷ তাঁরও মত, এক্ষেত্রে যাবতীয় কৃতিত্ব বিজ্ঞানীদের৷ একে নির্বাচনী প্রচারের হাতিয়ার করছে বিজেপি৷ কংগ্রেস ইসরোর বিজ্ঞানী এবং ডিআরডিও টিমকে শুভেচ্ছা জানিয়ে নিজেদের কৃতিত্ব নেওয়ার চেষ্টার ত্রুটি রাখেনি৷ প্রায় সব কংগ্রেস নেতার গলায় শোনা গেল, ইসরো তাঁদের সময়কার, এই প্রকল্পও তাঁদের আমলে চালু হয়েছিল৷ আরও একধাপ এগিয়ে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী টুইটারে কটাক্ষ করে বলেছেন, ‘মোদিকে বিশ্ব নাট্য দিবসের শুভেচ্ছা৷’ কংগ্রেস নেতা আহমেদ প্যাটেল অবশ্য গোটা সাফল্যের কৃতিত্ব দিয়েছেন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংকে৷ তাঁর আমলেই এ-স্যাট তৈরির পরিকল্পনা হয়েছিল বলে দাবি কংগ্রেসের৷ তবে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দিয়ে মোদির এই ঘোষণাকে অনেকেই নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হতে চলেছে৷

এদিকে মোদির ঘোষণার পরেই নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছিল, দেশের সুরক্ষার ক্ষেত্রে কোনও ঘোষণার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে কমিশনের অনুমতি নিতে হবে না৷ কিন্তু সন্ধেয় শোনা গেল অন্য সুর৷ বিরোধীদের অভিযোগের পর কমিশন জানায়, এই ঘোষণা নির্বাচনী নিয়মভঙ্গ করেছে কিনা, তা খতিয়ে দেখা হবে৷ মোদির বক্তব্যের প্রতিলিপিও চেয়ে পাঠানো হয়েছে৷

                                   আরও পড়ুন : ককপিটে ফেরার অদম্য জেদ, ছুটি শেষের আগেই কাজে যোগ দিলেন অভিনন্দন বর্তমান]

তবে বিজ্ঞানীরা বলছেন, মহাকাশ বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে এই সাফল্য খুব বড় ব্যাপার না হলেও, ভারতের মতো দেশে এটি খুবই উচ্চমানের সাফল্য৷ ডিআরডিও-র প্রধান ভি কে সারস্বত বলেন, ‘যদি কেউ মহাকাশে আমাদের শাসন করতে চায়, তাহলে দেশ তার যোগ্য জবাব দিতে এখন প্রস্তুত৷ আমাদেরও প্রযুক্তিগত সেই ক্ষমতা আছে৷’ বিজ্ঞানীদের এই সাফল্য নিঃসন্দেহে এক ইতিহাসের সাক্ষী৷ তবে এনিয়ে রাজনীতিকরণের চেষ্টাকে মোটেও ভাল নজরে দেখছে না বিশেষজ্ঞ মহল৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং