BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাম মন্দির তহবিলে জমা পড়া দেড় হাজারেরও বেশি চেক বাউন্স করেছে, জানাল ট্রাস্ট

Published by: Biswadip Dey |    Posted: April 16, 2021 2:21 pm|    Updated: April 16, 2021 2:21 pm

Over 15,000 cheques worth Rs 22 crore received for Ram temple in Ayodhya bounce । Sangbad Pratidin

অযোধ্যায় প্রস্তাবিত রাম মন্দির

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (Coronavirus) আবহেও দেশজুড়ে অযোধ্যায় (Ayodhya) রাম মন্দির (Ram Mandir) নির্মাণের অনুদান সংগৃহীত হয়েছে। দেশজুড়ে ভক্তদের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহ করছে ‘শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র’ ট্রাস্ট। ২ হাজার ১০০ কোটি টাকারও বেশি জমা পড়েছে তহবিলে। কিন্তু তার মধ্যেই জানা গেল, এক অদ্ভুত খবর। অনুদানের জন্য জমা পড়া দেড় হাজারেরও বেশি চেক বাউন্স করেছে! যার সম্মিলিত অঙ্ক ২২ কোটি টাকা!

কেন্দ্রীয় সরকারের ‘শ্রীরাম জন্মভূমি তীর্থক্ষেত্র’ ট্রাস্টের অডিট রিপোর্টেই সামনে এসেছে এই চমকপ্রদ তথ্য। সংশ্লিষ্ট কর্মীরা জানিয়েছেন, অপর্যাপ্ত ব্যালেন্স ছাড়াও চেকে ওভাররাইটিং কিংবা সই না মেলার কারণেও বহু চেক বাউন্স করেছে।

[আরও পড়ুন: প্রয়াত সিবিআইয়ের প্রাক্তন ডিরেক্টর রঞ্জিত সিনহা

ট্রাস্টের অন্যতম সদস্য ড. অনিল মিশ্র জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলির সঙ্গে এব্যাপারে কাজ করছেন তাঁদের ট্রাস্টের সদস্যরা। যাঁদের চেক বাউন্স করেছে, তাঁদের কাছে সেই চেকগুলি ফিরিয়ে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। প্রত্যেককেই ওই চেকের পরিবর্তে নতুন চেক দেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে। ট্রাস্টের কোষাধ্যক্ষ স্বামী গোবিন্দদেব গিরি জানিয়েছেন, বাউন্স হওয়া চেকের মধ্যে ২ হাজার চেক অযোধ্যা থেকেই এসেছে। বাকি ১৩ হাজারের বেশি চেক জমা পড়েছে সারা দেশ থেকে।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও অন্য হিন্দুত্ববাদী সংগঠনগুলি গত ১৫ জানুয়ারিতে শুরু হয়েছিল ওই অনুদান। যা চলেছিল ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। সরকারি হিসেবে অনুদানের অঙ্ক যা বলা হচ্ছে, বেসরকারি সূত্রের মত তার থেকে অনেকটাই বেশি। সব মিলিয়ে আড়াই হাজার কোটি টাকার মতো অনুদান জমা পড়েছে বলে দাবি সেই সূত্রের।

[আরও পড়ুন: দুই সন্তানই কন্যা, পুত্র না হওয়ায় স্ত্রীর উপর অ্যাসিড হামলা স্বামীর]

এদিকে অনুদান নিয়ে সাংঘাতিক অভিযোগ করতে দেখা গিয়েছে কর্নাটকের প্রাক্তন মুখ‌্যমন্ত্রী কুমারস্বামীকে (HD Kumaraswamy)। জনতা দল সেকুলার নেতার অভিযোগ, অযোধ‌্যার মন্দিরের জন‌্য কারা দান দিচ্ছেন আর কারা দিচ্ছেন না, তা চিহ্নিত করে রাখছেন সংঘের সদস‌্যরা। ইঙ্গিত, পরবর্তী সময়ে দানের নিরিখে তাঁদের সঙ্গে আচরণ করা হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে