২৬ বৈশাখ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘যুদ্ধ শুরু করেছে পাকিস্তান, শেষ করব আমরা’, মন্তব্য প্রাক্তন সেনাকর্তার

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: February 20, 2019 6:33 pm|    Updated: February 20, 2019 6:33 pm

Pakistan has started a war

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যুদ্ধ শুরু করেছে পাকিস্তান, শেষ করব আমরা। এমনই মন্তব্য করলেন ভারতের প্রাক্তন মেজর জেনারেল গগনদীপ বক্সি। পুলওয়ামায় ৪৯ জন সিআরপিএফ জওয়ানের মৃত্যুকে যুদ্ধের সূচনা বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পাকিস্তান যা শুরু করেছে তা শেষ করবে ভারত।

মঙ্গলবারই একটি সাক্ষাৎকারে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, পুলওয়ামার ঘটনার জন্য পাকিস্তানকে অযথা দোষারোপ করছে ভারত। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যদি তারা যুদ্ধ করে তাহলে প্রত্যাঘাত করবে পাকিস্তান। পাশাপাশি যুদ্ধ শুরু হয় কিন্তু শেষ হয় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বুধবার এর সমালোচনা করে জেনারেল বক্সি বলেন, “গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ইমরানের জইশ-ই-মহম্মদ নেটওয়ার্ক আমাদের সিআরপিএফের কনভয়ে হামলা চালিয়ে ৪০ জন মানুষকে মেরেছে। তারপর জইশ বুক ফুলিয়ে সেটা স্বীকারও করেছে। তারা যেটা করেছে সেটা কোনও সন্ত্রাসবাদী হামলা নয়, এটা যুদ্ধের সূচনা। ওরা শুরু করলেও আমরা যুদ্ধটা শেষ করব।”

[পুলওয়ামা হামলার জন্য দায়ী আইএসআই, বলছে কংগ্রেসও]

পাশাপাশি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরানকে কটাক্ষ করে তিনি আরও বলেন, ইমরান খান তো ওই পদে নির্বাচিত হননি, ওনাকে মনোনীত করা হয়েছে। ওনাকে পাকিস্তান সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া ওই পদের জন্য মনোনীত করেছেন। আর তার বদলে ইমরান এখন অবসরের পরেও সেনাপ্রধান হিসেবে তাঁকে থাকার সুযোগ করে দিচ্ছেন।

তিনি আরও দাবি করেন, “আমরা জানতাম যে ইমরান খান তাদের দেশের সেনাকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না। কিন্তু, এখন দেখতে পাচ্ছি মাসুদ আজহারের উপরও তাঁর কোন নিয়ন্ত্রণ নেই। পাকিস্তানের সেনার মতোই জইশ-ই-মহম্মদও তাঁর কথা শোনে না। তবে এই সমস্ত এতদিন আমরা সহ্য করলেও আর সহ্য করব না।” পুলওয়ামার ঘটনায় পাকিস্তানের জড়িত থাকার বিষয়ে ভারতের থেকে প্রমাণ চেয়েছেন ইমরান। এপ্রসঙ্গে ভারতের প্রাক্তন সেনাকর্তা বলেন, “প্রমাণ তখনই দরকার হয় যখন খুনি নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করে না। কিন্তু, এই জঙ্গি হামলা যে তারাই করেছে তা গোটা বিশ্বের সামনে জোর গলায় স্বীকার করেছে জইশ। তাই এক্ষেত্রে প্রমাণ দেওয়ার কোনও দরকার নেই।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে