BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চিনের রকেট হামলায় মৃত্যু ১৫৮ জন ভারতীয় সেনার!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 18, 2017 5:36 am|    Updated: July 18, 2017 5:36 am

Pak media circulating fake news on India-China confrontation

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক : চিনা রকেট হামলায় ভারত চিন সীমান্তে অন্তত ১৫৮ জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও বহু জওয়ান। চিনের সরকারি সংবাদসংস্থাকে উদ্ধৃত করে এই তথ্য প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের টেলিভিশন চ্যানেল দুনিয়া নিউজ এবং ডন টিভি। একটি দু’মিনিটের ফুটেজে দেখা যাচ্ছে ভারতীয় জওয়ানদের ওপর হামলা চালাচ্ছে চিনা সেনা। ব্যবহার করা হয়েছে রকেট লঞ্চার, গ্রেনেড ও মর্টার।

 

তবে এই তথ্য সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে নয়া দিল্লি। বিদেশমন্ত্রক এই খবর প্রচারের কড়া সমালোচনা করে জানিয়েছে ঘোলা জলে মাছ ধরতে চাইছে পাকিস্তান। ভারত চিন সীমান্তের উত্তাপকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের অবস্থান আরও জটিল করে তুলছে। এই ইস্যুতে পাকিস্তানকে সতর্কও করেছে ভারত।

অন্যদিকে, দোকা লা লাগোয়া ভারত চিন সীমান্তে প্রহরা বাড়িয়েছে দুই দেশই। গত তিরিশ দিন ধরে মানববন্ধন করে সীমান্ত পাহারা দিচ্ছেন ভারতীয় জওয়ানরা। নাথু লা পাস থেকে ১৫ কিমি দূরে সশস্ত্র ভারতীয় ও চিনা সেনাদের মহড়া রক্তচাপ বাড়াচ্ছে নয়া দিল্লি ও বেজিং-এর প্রায় পাঁচশো মিটার এলাকা জুড়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে ভারতীয় জওয়ানদের মানববন্ধন।দিল্লির তরফে আলোচনার রাস্তা খোলা থাকলেও, সীমান্তের পরিস্থিতি একই রকম রয়ে গেছে বলে সেনা সূত্রে খবর।

border
শুধু মানববন্ধন নয়। নজরদারি চলছে ড্রোনের সাহায্যেও। ধরা পড়েছে চিন সীমান্তের আসল ছবি। দেখা গেছে প্রায় ৩০০০ সশস্ত্র চিন সেনা পাহারায় রয়েছে। ভারতীয় জওয়ানদের মানববন্ধনের থেকে এক কিমি দূরেই তাদের অবস্থান। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪৫০০ মিটার ওপরে এই এলাকায় আবহাওয়া বেশ প্রতিকূল। তাই প্রতি দুঘন্টায় মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে থাকা জওয়ানরা স্থান পরিবর্তন করছেন। তবে এর আগে, চাপ বাড়াতে কয়েক বার মহড়া চালিয়েছে চিন। তিব্বত কম্যান্ডের অধীনে থাকা একটি ব্রিগেড দ্রুত সেনা পাঠানো ও বিভিন্ন ইউনিটের একসঙ্গে হামলার একটি মহড়া দিয়েছে। ওই ব্রিগেডটি মাউন্টেন ওয়ারফেয়ারে বিশেষ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। সেটি এখন দোকলামের কাছেই পূর্ব তিব্বতের লিঝি এলাকায় মোতায়েন রয়েছে।

doklam

এরআগে, সীমান্তে চিনের বাড়বাড়ন্ত নিয়ে সরব হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে চিঠি দিয়ে তাঁর উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন মমতা। পশ্চিমবঙ্গও যে সমস্যায় পড়তে পারে, তাও উল্লেখ করেছেন তিনি চিঠিতে। তৃণমূলের অভিযোগ, কেন্দ্রের ভুল বিদেশনীতিই এর জন্য দায়ী। সীমান্তে ভারতই প্রথম শক্তি প্রদর্শনের রাস্তায় হাঁটে।এরই সমালোচনা করেছেন মমতা। ‘চিকেন নেক’ নামে পরিচিত শিলিগুড়ি করিডরের নিরাপত্তাও সংকটে বলে দাবি তাঁর। নিরাপত্তার স্বার্থে উত্তর-পূর্ব সীমান্তে চিনের প্রভাব রুখতে কেন্দ্রকে তৎপর হওয়ার অনুরোধ করেন মমতা।

 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে