BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সন্ত্রাস বন্ধ করুক পাকিস্তান, চরম হুঁশিয়ারি মোদির

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 28, 2016 12:27 pm|    Updated: May 28, 2016 12:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুই প্রতিবেশী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্ক বাস্তবে দারুণ জায়গায় পৌঁছে যেতে পারে৷ তবে তার আগে পাকিস্তানকে ‘স্বঘোষিত’ সন্ত্রাসবাদের বাধা থেকে মুক্ত হতে হবে৷ রাষ্ট্রীয় শক্তিই হোক বা সরকারি মদতপুষ্ট অন্যান্য জঙ্গি সংগঠন–তাদের কোনও রকম সহায়তা দেওয়া পুরোপুরি বন্ধ করতে হবে ইসলামাবাদকে৷ একটি সাক্ষাৎকারে এ কথা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

সম্প্রতি আমেরিকার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি সেখানে বলেছেন, “ভারত-পাক দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে উন্নতির প্রধান অন্তরায় সন্ত্রাসবাদ৷ পাকিস্তান জঙ্গিদের মদত দেওয়া বন্ধ করলে আমাদের সম্পর্ক সত্যিই অন্য উচ্চতায় পৌঁছে যাবে৷ আমরা আগে পা বাড়াতে রাজি৷ কিন্তু শান্তি প্রক্রিয়া দ্বিমুখী ব্যবস্থা৷” পরস্পরের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের বদলে দারিদ্রের বিরুদ্ধে একসঙ্গে যুদ্ধ করা অনেক বেশি জরুরি বলেও প্রধানমন্ত্রী মন্তব্য করেছেন৷ তাঁর মত, সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে কোনও রকম আপস করা সম্ভব নয়৷ পাকিস্তানকেও তাদের ভূমিকা সঠিকভাবে পালন করতে হবে৷ “রাষ্ট্রীয় শক্তিই হোক বা সরকারি মদতপুষ্ট অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনকে সাহায্য করা পুরোপুরি বন্ধ না করলে সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করা সম্ভব নয়৷ বিভিন্ন জঙ্গি হামলার মূল চক্রীদের বিরুদ্ধে পাকিস্তান কার্যকর ব্যবস্থা নিতে পারেনি, তাই আমাদের সম্পর্কের উন্নতি হচ্ছে না,” বলেছেন মোদি৷

(জাতীয় সংগীতের অবমাননায় অভিযুক্ত ফারুখ, ভাইরাল ভিডিও)

প্রধানমন্ত্রীর দাবি, দায়িত্ব গ্রহণের প্রথম দিন থেকে তিনি প্রতিবেশীদের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ ও উন্নতির সম্পর্ক স্থাপনে উদ্যোগী হয়েছিলেন৷ লাহোরে পাক প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে আচমকা যাওয়া তারই অঙ্গ৷ দীর্ঘদিনের জোট-নিরপেক্ষ নীতির কোনও বদল হবে না বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি৷ এমনকী, সীমান্ত নিয়ে বিরোধ থাকলেও চিনের সঙ্গে ভারতের কোনও সংঘর্ষ হয় না বলেও তাঁর দাবি৷ মোদির মত, “আমরা আর কোণঠাসা নই৷ বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্র ও সবচেয়ে গতিশীল অর্থনীতি৷ এলাকায় ও আন্তর্জাতিক মহলে আমাদের কী ভূমিকা, সে বিষয়ে যথেষ্ট সচেতন৷ বিভিন্ন দেশের মানুষের মধ্যে নিবিড় যোগাযোগ, বাণিজ্য বৃদ্ধি পেয়েছে৷ তাই যে সমস্ত ধারণা প্রচলিত রয়েছে, সবটাই সত্যি নয়৷ বিশ্বের অন্যতম উন্নয়নশীল শক্তি হিসাবে আমেরিকা আমাদের গুরুত্ব দেয়৷ চিনের সঙ্গেও তেমন সম্পর্ক গড়ে তোলা যেতে পারে৷”

ভারত মহাসাগর অঞ্চলে নিরাপত্তা ও স্থিতাবস্হা বজায় রাখতে ভারত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয় বলেও মোদি উল্লেখ করেছেন৷ আমেরিকার সঙ্গে বহু বিষয়ে ভারত সহমত পোষণ করলেও নীতি নির্ধারণের ক্ষেত্রে কোনও তৃতীয় দেশের হস্তক্ষেপ সহ্য করা হয় না বলেও তিনি জানান৷ মোদি বলেছেন, “বিশ্বের বিভিন্ন্ দেশ এখন পরস্পরের প্রতি অনেক বেশি যুক্ত৷ তাই ঠান্ডা যুদ্ধের মতো পরিস্থিতি আর কখনও তৈরি হবে না৷” এদিকে, ২৬/১১-র মুম্বই হামলার তদন্তে ভারতকে সাহায্য করার জন্য পাকিস্তানকে কড়া বার্তা দিল আমেরিকা৷ তারা জানিয়েছে, পাক ভূখণ্ড ব্যবহার করা সমস্ত জঙ্গিগোষ্ঠীকেও অবিলম্বে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন বিদেশ দফতরের সহকারী মুখপাত্র মার্ক টোনার৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement