১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

ফের বাড়তে পারে লকডাউনের মেয়াদ! ‘মন কি বাত’-এ ঘোষণার সম্ভাবনা

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 27, 2020 4:31 pm|    Updated: May 28, 2020 12:29 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৩১ মে, রবিবার মন কি বাত ( Mann Ki Baat) অনুষ্ঠানে ঘোষণা হতে পারে লকডাউনের পঞ্চম পর্বের। সেদিনই শেষ হচ্ছে লকডাউনের চতুর্থ পর্বের সময়কাল। সূত্রের খবর, এই পঞ্চম দফায় দেশের মোট ১১টি শহরের উপর জোর দেওয়া হবে। তবে চতুর্থ পর্বের মত এই পর্বে আরও বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় মেলার সম্ভাবনায় আশাবাদী অনেকেই।

দেশে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের মাত্রা। ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ৬ হাজারের গণ্ডি পেরিয়েছে। তাই লকডাউনের নিয়মে শিথিলতা জারি করলেও নজর রাখা হবে বেশ কিছু শহরে। ৩১ মে রবিবার, মন কি বাত অনুষ্ঠানে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণা করতে পারেন  খোদ প্রধানমন্ত্রী। সূত্রের খবর যে শহরগুলিতে সংক্রমণের মাত্রা ক্রমেই বাড়ছে সেই ১১টি শহরকে এই পঞ্চম পর্বে বিশেষ নজরে রাখা হবে। এই শহরগুলির মধ্যে রয়েছে- দিল্লি, মুম্বই, বেঙ্গালুরু, পুনে, থানে, ইন্দোর, চেন্নাই, আহমেদাবাদ, জয়পুর, সুরাট ও কলকাতা। দেশে মোট করোনা আক্রান্তের ৬০ শতাংশের খোঁজ মিলেছে আহমেদাবাদ, দিল্লি, পুনে, মুম্বই ও কলকাতা থেকে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে দেড় লক্ষ। সংক্রমণের নিরিখে আগেই কেন্দ্র দেশের ৩০ পুরসভাকে চিহ্নিত করে তালিকা প্রস্তুত করেছিল। এই চিহ্নিত পুরসভাগুলির মধ্যেই দেশের ৮০ শতাংশ করোনা আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে।

[আরও পড়ুন:পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিশেষ উদ্যোগ, মালবাজারে নদীর ধারে প্রস্তুত কোয়ারেন্টাইন সেন্টার]

চতুর্থ দফার মতই পঞ্চম দফাতেও বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হবে বলেই জানা যায়। পঞ্চম পর্বে শর্তসাপেক্ষে ধর্মীয় স্থানগুলি খোলার অনুমতি মিলতে পারে। তবে কোনও আচার-অনুষ্ঠান সেখানে পালন করা যাবে না। অর্থাৎ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। নিষেধাজ্ঞা জারি থাকবে জনসাধারণের জমায়েতেও। পঞ্চম দফাতেও প্রতিটি ধর্মীয় স্থানে মাস্ক পরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা আবশ্যিক বলে জানানো হবে। ইতিমধ্যেই কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদ্দুরাপ্পা বুধবার প্রধানমন্ত্রীকে ধর্মীয় স্থান খোলার আবেদনে চিঠি লেখেন।

[আরও পড়ুন:রেলের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ, পরিস্থিতি সামাল দিতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি মমতার]

লকডাউনের নির্দেশিকা মেনে চতুর্থ পর্বে সেলুন খোলার অনুমতি দেওয়া হয়। তবে পঞ্চম দফায় কন্টেনমেন্ট জোন (containment zones) বাদে প্রতিটি জোনে মিলতে পারে জিম খোলার অনুমতি। তবে এখুনি স্কুল-কলেজ-সহ কোনও সরকারি বা বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার অনুমতি দেওয়া হবে না বলে জানা যায়। বন্ধ রাখা হবে শপিং মল, সিনেমা হল। লকডাউনের মিধি মেনে চলতে পারে বিয়ে ও শ্রাদ্ধের অনুষ্ঠান। তবে আর কী কী বিষয়ে ছাড় দেওয়া হবে তার বিস্তারিত বিবরণ পাওয়া যাবে প্রধানমন্ত্রীর আগামী মন কি বাত অনুষ্ঠানেই।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement