BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

থাবা বাড়াচ্ছে করোনা, মুজিবের জন্মদিনে বাংলাদেশ সফর বাতিল মোদির

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: March 10, 2020 9:30 am|    Updated: March 10, 2020 9:30 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বেলজিয়ামের পর এবার বাংলাদেশ। করোনা আতঙ্কের জেরে বাংলাদেশ সফর বাতিল হল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। আগামী ১৭ মার্চ ‘মুজিববর্ষ’ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ঢাকা যাওয়ার কথা ছিল মোদির। শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে নরেন্দ্র মোদিকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১৭ মার্চ ঢাকার প্যারেড গ্রাউন্ডে হওয়ার কথা ছিল ওই অনুষ্ঠানের। সেখানেই বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে থাকার কথা ছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিরও। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি দুই রাষ্ট্রনেতার মধ্যে বৈঠক হওয়ার কথাও ছিল। বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের প্রকোপে উদ্ভূত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে ‘মুজিববর্ষ’ অনুষ্ঠান বাতিল করে দেয় বাংলাদেশ। তারপরই মোদির সফর বাতিল করা হয়। বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার জানান, বাংলাদেশ সরকারের তরফে অনুষ্ঠান বাতিলের নির্দেশিকা মিলেছে।

[আরও পড়ুন: মধ্যরাতে নাটক মধ্যপ্রদেশে, একসঙ্গে ২০ জন মন্ত্রীর ইস্তফাপত্র গ্রহণ কমল নাথের]

এদিকে, এক ধাক্কায় দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ‌্যা তিন জন বাড়ল। বর্তমানে দেশে করোনা আক্রান্ত ৪৩ জন। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের তরফে এ কথা জানানো হয়েছে। ভাইরাসের সংক্রমণ নিশ্চিত হয়েছে কেরলের বছর তিনেকের এক শিশুর দেহে। ইতালি থেকে দুবাই হয়ে গত ৭ মার্চ মা-বাবার সঙ্গে দেশে ফিরেছিল ওই শিশুটি। কোচি বিমানবন্দরে থার্মাল স্ক্রিনিং-সহ অন‌্যান‌্য জরুরি পরীক্ষা হয়। সেখানেই তার শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়ে। এই মুহূর্তে এর্নাকুলাম মেডিক্যাল কলেজে শিশুটির চিকিৎসা চলছে। তাঁদের শরীরেও সংক্রমণ ছড়িয়েছে কি না, খতিয়ে দেখতে শিশুটির মা-বাবাকেও হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে, চিকিৎসকদের কড়া নজরদারিতে রাখা হয়েছে। এর পাশাপাশি শনিবার সকালে জম্মু-কাশ্মীরে বছর ৬৩-র এক বৃদ্ধার শরীরেও ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে।

অন‌্যদিকে রবিবার মুর্শিদাবাদ মেডিক‌্যাল কলেজে জিনারুল হক নামে যে যুবকের মৃত্যু হয়েছিল, তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন না বলেই সোমবার জানা গিয়েছে। নবগ্রামের বাসিন্দা, ৩৩ বছর বয়সি জিনারুল শনিবারই ফিরেছিলেন সৌদি আরব থেকে। ডায়াবিটিস মেলিটাসে আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি জ্বর-হাঁচি-কাশি এবং শ্বাসকষ্টের লক্ষণ থাকায়, করোনা আক্রান্ত সন্দেহে তাঁকে ভরতি করা হয়েছিল আইসোলেশন ওয়ার্ডে। তাঁর লালারসের নমুনা পাঠানো হয়েছিল পরীক্ষার জন‌্য। কিন্তু রিপোর্ট আসার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়। সোমবার সেই রিপোর্ট প্রকাশ্যে এসেছে। আর তাতে জিনারুলের দেহে করোনার অস্তিত্ব মেলেনি। জিনারুলের মতোই জ্বর-হাঁচি-কাশির লক্ষণ নিয়ে লাদাখের একটি হাসপাতালে ভরতি হয়েছিলেন মহম্মদ আলি নামের ৭৬ বছরের এক বৃদ্ধ। তিনি সম্প্রতি ইরান থেকে দেশে ফেরেন। শনিবার রাতে হাসপাতালে ভরতি হন। রবিবার সকালে তাঁর মৃত্যু হয়। করোনার ছোবলেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে কি না, তা এখনও চূড়ান্ত নয়। রাজস্থানের জয়পুরে করোনা-কোয়ারান্টাইন থেকে পলাতক নদিয়ার যুবকের খোঁজ মিলেছে হাওড়া স্টেশনে। এদিকে, করোনা আতঙ্কে প্রায় সাত লক্ষ কোটি টাকা ক্ষতির মুখে পড়তে চলেছেন দেশের বিনিয়োগকারীরা। অন‌্যদিকে তেহরান-সহ ইরানের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া ভারতীয়দের উদ্ধারে বায়ুসেনার বিশেষ বিমান ‘সি-১৭ গ্লোবমাস্টার’ পাঠানো হয়েছে। সোমবার রাতেই বায়ুসেনার বিমান উড়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘মুজিববর্ষে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’, প্রতিশ্রুতি শেখ হাসিনার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement