BREAKING NEWS

২৯ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

২১ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ভরসা বুদ্ধের দেখানো পথ, বার্তা মোদির

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 4, 2020 10:03 am|    Updated: July 4, 2020 10:26 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গৌতম বুদ্ধের দেখানো পথে হেঁটেই বিশ্বের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান সম্ভব। ধর্মচক্র দিবসে এমনই বার্তা দিলেন প্রধাননমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। শনিবার গুরু পূর্ণিমায় ধর্মচক্র দিবসে দেশবাসীর উদ্দেশে বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “গৌতম বুদ্ধের বাণী আজও প্রাসঙ্গিক। আর ভবিষ্যতেও তা থাকবে।” প্রসঙ্গত, শুক্রবার লেহতে দাঁড়িয়েও গৌতম বুদ্ধকে স্মরণ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী। এর পিছনে কূটনীতি রয়েছে বলে দাবি করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “২১ শতকে একাধিক চ্যালেঞ্জের সামনে দাঁড়িয়ে বিশ্ব। সেই সমস্ত চ্যালেঞ্জের স্থায়ী মোকাবিলা করতে ভরসা বুদ্ধের দেখানো পথ।” এদিন বলতে গিয়ে তিনি গৌতম বুদ্ধে অষ্টমার্গের কথাও উল্লেখ করেন। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের কুশিনগরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে ঘোষণা করেছে  কেন্দ্র সরকার। এদিন সেকথাও আরও একবার স্মরণ করিয়ে দিলেন মোদি। জানালেন, বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে কুশিনগরের গুরুত্ব প্রচুর। তাই দেশ-বিদেশে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন : আনলক ২-এ আরও ভয়ংকর করোনার দাপট, উদ্বেগ বাড়াল দেশের রেকর্ডভাঙা আক্রান্তের সংখ্যা]

এদিন প্রধানমন্ত্রী বলেন, “সুস্থ দেশ ও জাতি গড়ে তুলতে গৌতম বুদ্ধের মন্ত্র মনে রাখতে হবে। তিনি সুস্থ জীবন ও জাতি গড়ে তোলার পথ দেখিয়ে দিয়ে গিয়েছেন। যা ২১ শতকে দাঁড়িয়ে ভীষণই প্রাসঙ্গিক।” তবে প্রধানমন্ত্রীর এই বুদ্ধ স্মরণের পিছনে বিশেষ  কূটনীতি দেখছেন রাজনৈতিক মহল।

রাজনৈতির মহলের কথায়, লাদাখে দাঁড়িয়ে বুদ্ধের দেখানো শান্তির পথে হাঁটার বার্তা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। যা আদপে লাদাখের বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের কাছে টানার বার্তা। ভোটের কথা মাথায় রেখেই প্রধানমন্ত্রী এই পথে হেঁটেছেন বলে দাবি করছেন রাজনৈতিক মহল। আবার তিব্বত এবং চিনকেও ঘুরিয়ে বার্তা দেওয়া গেল বলে দাবি করছেন অনেকে। 

[আরও পড়ুন : অমানবিক! হাসপাতালের বিল মেটাতে না পারায় শ্রমিককে পিটিয়ে খুন, ভাইরাল ভিডিও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement