BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বাড়ছে দূরত্ব! চিনা মাইক্রো ব্লগিং সাইট Weibo ছাড়লেন মোদি, মুছে ফেলা হল ১১৩টি পোস্ট

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 1, 2020 8:59 pm|    Updated: July 1, 2020 9:14 pm

PM Modi hits delete on his Weibo account after banning it in India

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমশ বাড়ছে দূরত্ব। লাদাখ সীমান্তের উত্তেজনার প্রভাব পড়ছে দু’দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কেও। চিনকে প্রত্যাঘাত করতে একধাক্কায় ৫৯টি অ্যাপ (App) নিষিদ্ধ করেছে ভারত। মোদি সরকারের সেই পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন খোদ মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও (Mike Pompeo)। এবার চিনের মাইক্রো ব্লগিং সাইট উইবো (Weibo)-র অ্যাকাউন্ট  ডিলিট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র  মোদি (Narendra Modi)। একইসঙ্গে তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে করা সমস্ত পোস্ট-কমেন্ট মুছে ফেলা হল। যদিও গোটা প্রক্রিয়াটি বেশ জটিল ও সময় সাপেক্ষ ছিল।

২০১৫ সালে চিন সফরের আগে উইবো (Weibo)-তে অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন নরেন্দ্র মোদি। এই অ্যাকাউন্টটিতে প্রধানমন্ত্রীর ফলোয়ার সংখ্যা ছিল কমবেশি ২,৪৪,০০০। সেই অ্যাকাউন্টটি ডিলিট করে দেওয়া হল। সেখানে মোট ১১৫টি পোস্ট ছিল। তারমধ্যে ১১৩টি পোস্ট মুছে ফেলা হয়েছে। জানা গিয়েছে, উইবো-তে ভিআইপি অ্যাকাউন্ট ডিলিট করার নিয়মকানুন বেশ জটিল। যার জন্য ম্যানুয়ালি সবকটি কমেন্ট, পোস্ট ডিলিট করতে হয়। যা বেশ সময়সাপেক্ষ। সরকারি সূত্রে খবর, পুরো বিষয়টি নাকি চিনের কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপক্ষে। সেই অনুমতি পেতে বেশ খানিকটা দেরি হয়েছে। নাহলে আরও আগে এই পোস্টগুলি মুছে ফেলা হত। একইসঙ্গে অ্যাকাউন্টও ডিলিট করে দেওয়া হত। 

PM weibo

[আরও পড়ুন : সীমান্তে তুঙ্গে উত্তেজনার পারদ, লাদাখ যাচ্ছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং]

তবে দু’টি পোস্ট রেখে দেওয়া হয়। এই দু’টি পোস্টে চিনা প্রেসিডেন্ট জি জিনপিংয়ের সঙ্গে ছবি ছিল নরেন্দ্র মোদির। কারণ চিনা প্রেসিডেন্টের ছবি ডিলিট করার বিষয়টি টেকনিক্যালি যথেষ্ট কঠিন। প্রসঙ্গত, টুইটারের মতই উইবো একটি চিনা মাইক্রোব্লগিং সাইট। ভারতেও এর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে।

সোমবার ৫৯টি চিনা অ্যাপ ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে কেন্দ্র। এরপর আসতে আসতে টিকটক, হ্যালো-সহ সমস্ত অ্যাকাউন্টের কাজই বন্ধ হয়ে গিয়েছে ভারতে। ভারতের এই পদক্ষেপে প্রশংসা করেছেন আমেরিকাও। বুধবার এক বিবৃতিতে মার্কিন বিদেশ সচিব মাইক পম্পেও বলেন, “এই পদক্ষেপ ভারতেি সার্বভৌমত্ব ও জাতীয় নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করবে।” আমেরিকার তরফে এই বিবৃতি নিসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন : টিকটক নিষিদ্ধ হওয়ায় অনিশ্চিত দু’হাজার কর্মীর ভবিষ্যৎ, কী বার্তা দিলেন সংস্থার CEO]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে