BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘আর্বান নকশাল’ ইস্যুতে ছত্তিশগড়ে কংগ্রেসকে নজিরবিহীন আক্রমণ মোদির

Published by: Tanujit Das |    Posted: November 9, 2018 3:47 pm|    Updated: November 9, 2018 3:58 pm

PM Modi attacks Congress in Chhattisgarh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উনিশের লোকসভা নির্বাচনের আগে পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোট দিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে সেমিফাইনালের লড়াই৷ উত্তপ্ত রাজনৈতিক আবহে শুক্রবার একই সঙ্গে ছত্তিশগড়ে নির্বাচনী প্রচারে ঝড় তুললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ পরস্পরকে আক্রমণের কোনও কসুর করল না যুযুধান দু’পক্ষ৷ একদিকে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগে সরব রাহুল৷ অন্যদিকে কংগ্রেস শিবিরের বিরুদ্ধে মাওবাদীদের ইন্ধন দেওয়া এবং পূর্ববর্তী দুর্নীতির পালটা অভিযোগে সরব প্রধানমন্ত্রী৷

[ক্ষমতায় এলে হায়দরাবাদের নাম বদলে দেব, বার্তা বিজেপি বিধায়কের]

 

দীর্ঘ পনেরো বছর ধরে ছত্তিশগড়ের শাসনে রয়েছে বিজেপি৷ মুখ্যমন্ত্রী রয়েছেন রমণ সিং৷ কিন্তু সরকার বিরোধী আবহে এবার সেরাজ্যে ক্ষমতা ধরে রাখা বিজেপির কাছে অন্যতম বড় চ্যালেঞ্জ৷ শুক্রবার মাও-অধ্যুষিত বাস্তার জেলায় জগদলপুরে ভোটের প্রচারে যান প্রধানমন্ত্রী৷ গত একমাসে মাওহানায় একাধিকবার রক্তাক্ত হয়েছে ছত্তিশগড়ের মাটি৷ মৃত্যু হয়েছে একাধিক ভারতীয় জওয়ান থেকে শুরু করে সরকারি সংবাদমাধ্যমের কর্মীর৷ নির্বাচনের আগে আবারও মাও বাড়বাড়ন্ত নিয়ে বিরোধীদের আক্রমণের মুখে পড়তে হয়েছে কেন্দ্রকে৷ নির্বাচনী প্রচারে বিরোধীদের এই হাতিয়ারকেই পালটা চালে ব্যবহার করলেন প্রধানমন্ত্রী৷ কংগ্রেসকে এই সমস্ত ‘শহুরে নকশাল’ বা ‘আর্বান নকশাল’দের সমর্থনকারী বলে আক্রমণ শানালেন তিনি৷ বললেন, “এরা শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ঘরে থাকে, বিদেশে পড়াশোনা করে, দামি গাড়িতে ঘুরে বেড়ায় এবং ভারতে এসে বিচ্ছিন্নতাবাদের বিষবাষ্প ছড়ায়৷” পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী অভিযোগ করেন, দশ বছর কেন্দ্রের ক্ষমতায় থাকার পরেও এরাজ্যের কোনও উন্নতি করেনি কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার৷ তুলে ধরেন গেরুয়া শিবিরের পনেরো বছরের কর্মকাণ্ডের খাতিয়ান৷

[মহিলাকে গণধর্ষণ করে গোপনাঙ্গে লাঠি! নির্ভয়া কাণ্ডের ছায়া ঝাড়খণ্ডে]

মোদির কংগ্রেসকে আক্রমণের আগেই কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ শুক্রবার তিনিও ছত্তিশগড়ের কানকের জেলার পাখানজোরে নির্বাচনী প্রচারে যান৷ সেখানে গিয়ে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে৷ কংগ্রেস সভাপতির আক্রমণের তালিকায় ঠাঁই পেয়েছে নীরব মোদি থেকে শুরু করে বিজয় মালিয়া, রাফালে দুর্নীতি থেকে শুরু করে নোট বাতিল-সহ একাধিক ইস্যু৷ চলতি মাসের ১২ ও ২০ নভেম্বর দু’দফায় মাও অধ্যুষিত ছত্তিশগড়ে হতে চলেছে বিধানসভা নির্বাচন৷ হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে সেখানে মুখোমুখি লড়াই হবে কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে৷

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে