১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পরীক্ষা বাড়িয়েই করোনার বিরুদ্ধে লড়বে ভারত, টেস্টিং ল্যাব উদ্বোধন করে জানালেন মোদি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 27, 2020 6:01 pm|    Updated: July 27, 2020 6:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল: টেস্টিংয়ের মাধ্যমে দ্রুত করোনা রোগী চিহ্নিত করতে পারলে তবেই চিকিৎসা সঠিক পথে এগোবে। নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে সংক্রমণ। আর সেই উদ্দেশ্যেই কলকাতা, মুম্বই এবং নয়ডায় তিনটি নয়া টেস্টিং ল্যাবের ভারচুয়াল উদ্বোধন করলেন প্রধান নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। আর সেই সঙ্গে দেশবাসীকে আশ্বস্ত করলেন, অন্যান্য অনেক দেশের তুলনায় সুস্থতার দিক থেকে অনেকটাই এগিয়ে আছে ভারত।

সোমবারের ভারচুয়াল উদ্বোধনের অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন বাংলা, উত্তরপ্রদেশ এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, যোগী আদিত্যনাথ এবং উদ্ধব ঠাকরে। হাজির ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের আধিকারিকরাও। সেখানেই মোদি জানান, সঠিক সময়ে সমস্ত সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার কারণেই দেশে করোনাকে নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হয়েছে। অন্য দেশের তুলনায় এখানে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা অনেকটাই কম। বরং সুস্থতার হার প্রতিদিনই একটু একটু করে বেড়ে চলেছে। আর টেস্টিংয়ের মাধ্যমে করোনা পজিটিভ চিহ্নিতকরণের গতি বাড়ানো গেলে আরও শক্ত হাতে এই মারণ ভাইরাসকে রোখা সম্ভব হবে।

[আরও পড়ুন: ‘পড়ুয়াদের প্রতি মানবিক হোন’, UGC’র নয়া নির্দেশিকা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন মমতার]

modi

প্রধানমন্ত্রীর কথায়, “বর্তমানে গোটা দেশে প্রতিদিন পাঁচ লক্ষেরও বেশি টেস্ট হচ্ছে। আগামিদিনে সেই সংখ্যাটা রোজ ১০ লক্ষ করার চেষ্টা করা হবে। ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন প্রায় ১০ লক্ষ মানুষ। তাই টেস্টিং, ট্র্যাকিং ও ট্রেসিংয়ের মাধ্যমে বেশি করে করোনা রোগী চিহ্নিত করতে হবে। সেদিকেই জোর দেওয়া হচ্ছে। এই ল্যাবে দিনে আরও ১০ হাজার বেশি নমুনা টেস্ট করা যাবে।” একই সঙ্গে প্রত্যন্ত গ্রামগুলিতে চিকিৎসার পরিকাঠামো উন্নত করতে হবে বলেও মত মোদির।

নয়ডার ICMR- ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ক্যানসার প্রিভেনশন অ্যান্ড রিসার্চ, মুম্বইয়ের ICMR- ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর রিসার্চ ইন রিপ্রোডাক্টিভ হেল্থ এবং কলকাতার ICMR- ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ কলেরা অ্যান্ড এনট্যারিক ডিজিজেসে ১০ হাজারেরও বেশি স্যাম্পেল একদিনে টেস্ট করা যাবে। শুধু তাই নয়, কম সময়েই জানা যাবে রিপোর্টও। করোনা আবহে আপাতত কোভিড টেস্টে জোর দেওয়া হলেও মহামারী পরবর্তী সময়ে এখানে হেপাটাইটিস B ও C, HIV, মাইকোব্যাকটেরিয়াম, টিউবারকিউলোসিস, ডেঙ্গু ইত্যাদির পরীক্ষাও করা হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: ‘করোনা মোকাবিলায় কেউ কেউ অসহযোগী’, ঘুরিয়ে ধনকড়কে নিয়ে মোদিকে নালিশ মমতার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement