BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

হোলিতে জনসংযোগে নজর, দেশবাসীকে শুভেচ্ছা মোদি-মমতা-রাহুলের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 21, 2019 1:19 pm|    Updated: April 22, 2019 4:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রঙের উৎসব হোলি, যাতে মেতে ওঠে গোটা দেশ। জাত,ধর্মের বেড়াজালও ঘুচে যায় রঙের উৎসবে। এবছর আবার ভোটের মরশুমেই হোলি৷ স্বাভাবিকভাবেই এই উৎসবকে জনসংযোগের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিচ্ছেন রাজনৈতিক দলগুলির নেতারা। নরেন্দ্র মোদি থেকে শুরু করে বিরোধী শিবির – সকলেই এখন হোলির রঙে বুঁদ।

[বেলেল্লাপনা রুখতে শহরে টোটোয় টহলদারি পুলিশের, নজর থাকছে সংলগ্ন শহরতলিতেও]

হোলি উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী, তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে প্রায় সব শিবিরের রাজনৈতিক নেতা। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ জানিয়েছেন, “ভারতবাসী এবং প্রবাসী ভারতীয়দের বসন্ত এবং সমধর্মের উৎসব হোলির শুভেচ্ছা। রংয়ের উৎসব আপনাদের প্রত্যেকের পরিবারকে সমৃদ্ধিতে ভরিয়ে তুলুক।” প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও টুইট করে বলেন, “আনন্দের উৎসব আমাদের সদিচ্ছা আর একতাকে আরও দৃঢ় করবে।”

কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী টুইট বার্তায় বলেছেন, “আপনাদের সকলকে এবং আপনাদের পরিবারকে হোলির শুভেচ্ছা। আমার প্রার্থনা, এই উৎসব আপনাদের জীবন আরও বর্ণময় করুক।” বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও টুইটারে হোলির শুভেচ্ছাবার্তা পোস্ট করেছেন। তবে, মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন পুলওয়ামার শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে এবছর তিনি দোলের উৎসবে শামিল হবেন না। মমতা লিখেছেন, “রাঙিয়ে দিয়ে যাও, যাও, যাও গো এবার যাওয়ার আগে…বসন্ত উৎসবের শুভেচ্ছা। রঙিন হয়ে উঠুক সকলের জীবন। খেয়াল রাখবেন, আপনার আনন্দ যেন অন্যের বিষাদের কারণ না হয়। পুলওয়ামা জঙ্গিহানায় নিহত জওয়ানদের স্মৃতিতে আমি এবছর দোলের আনন্দে সামিল হওয়া থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷”

[রক্তের হোলি সেনা শিবিরে, সহকর্মীর গুলিতে প্রাণ গেল ৩ সিআরপিএফ জওয়ানের]

সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি রাস্তায় নেমেও জনসংযোগ করছেন রাজনৈতিক নেতারা। সকাল থেকেই রাজ্যের লোকসভার প্রার্থীদের দেখা গিয়েছে দোলে মেতে উঠতে। শুধু এরাজ্যেই নয়, রাজ্যের বাইরের ছবিটাও এক। উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে দেখা গিয়েছে সকাল সকাল আরএসএস দপ্তরে হোলিতে মাততে। অন্য নেতারাও একই পথে। অন্যদিকে, রঙের উৎসব বিভিন্ন আঙ্গিকে পালিত হচ্ছে মথুরা, বৃন্দাবন, মায়াপুর, আমেদাবাদের মতো শহরগুলিতে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement