Advertisement
Advertisement

৫০ দিন পর অসাধুরা শাস্তি পাবে: মোদি

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আরব সাগরের বুকে মারাঠা সম্রাট ছত্রপতি শিবাজি মহারাজের মূর্তির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ ৩৬০০ কোটি টাকা খরচ করে তৈরি হবে এই শিবাজি মেমোরিয়াল৷ ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠান শেষ করে বান্দ্রার কুরলা কমপ্লেক্সে বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে মোদি বলেন, “সুদক্ষ প্রশাসক কেমন হওয়া উচিত, শিবাজি মহারাজ তার নজির স্থাপন করে গিয়েছেন৷” Advertisement […]

PM Modi travel to Shivaji Memorial for its foundation-laying ceremony
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:December 24, 2016 5:38 pm
  • Updated:December 24, 2016 5:38 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আরব সাগরের বুকে মারাঠা সম্রাট ছত্রপতি শিবাজি মহারাজের মূর্তির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ ৩৬০০ কোটি টাকা খরচ করে তৈরি হবে এই শিবাজি মেমোরিয়াল৷ ভিত্তিপ্রস্তর অনুষ্ঠান শেষ করে বান্দ্রার কুরলা কমপ্লেক্সে বক্তব্য পেশ করতে গিয়ে মোদি বলেন, “সুদক্ষ প্রশাসক কেমন হওয়া উচিত, শিবাজি মহারাজ তার নজির স্থাপন করে গিয়েছেন৷”

প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন, “অসাধু ব্যক্তিদের শেষের দিন শুরু হয়ে গিয়েছে৷ এটা আরও এক স্বচ্ছ অভিযান৷ ৫০ দিন পর থেকে সৎ লোকেদের দুর্দশা কমতে শুরু করবে৷ বেইমানদের অসুবিধা বেড়ে যাবে৷”

Advertisement

গরিবদের হাতে আরও ক্ষমতা তুলে দেওয়ার লক্ষ্যেই কেন্দ্রীয় সরকার উন্নয়নের যজ্ঞ চালিয়ে যাবে বলে এদিন জানিয়েছেন মোদি৷ স্বাধীনতার ৭০ বছর পরেও ভারতের ১৮ হাজার গ্রাম এখনও অষ্টাদশ শতকে আটকে রয়েছে বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেন তিনি৷ তাঁর স্পষ্ট বক্তব্য, “দেশ বদলাবেই, এগিয়েও যাবে৷ বিশ্বের সামনে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে আমাদের দেশ৷”

দেখুন ভিডিও: 

তিনি আরও বলেন, “আজও বিশ্বে ভারতীয় পর্যটনের সুখ্যাতি রয়েছে৷ তাজমহলের নাম শুনলেই মনে হয় ঘুরে আসি৷ শিবাজি মহারাজের অনুপ্রেরণা আমাকে চলতে সাহায্য করে৷” ২০১৯-এর মধ্যে এই প্রকল্পের কাজ শেষ হয়ে যাবে বলে অনুমান৷

তবে খরা বিধ্বস্ত মহারাষ্ট্রে এত টাকা খরচ করে এই মূর্তি গড়ে তোলার সমালোচনাও কিছু কম হচ্ছে না৷ এখনও ৩.৩ লক্ষ কোটি টাকা দেনা রয়েছে মহারাষ্ট্র সরকারের৷ খরার ফলে কৃষকদের যে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা ছিল, তাও বকেয়া রয়ে গিয়েছে৷ বিশেষত, নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পরপরই কেন এত টাকা খরচ করে এই মূর্তি গড়ে তোলা হচ্ছে, সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তি৷ প্রায় ২৬ হাজার মানুষ একটি পিটিশনে স্বাক্ষর করে এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন৷

এদিন মুম্বইতে পৌঁছে সেই মূর্তির জন্য ‘জলপূজন’ করলেন প্রধানমন্ত্রী৷ তাঁর সঙ্গে এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়ণবিশ, শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে৷ মুম্বইয়ের মেরিন ড্রাইভ থেকে ৪ কিলোমিটার দূরে পাথুরে দ্বীপের উপর গড়ে উঠবে এই মূর্তি৷

যার জন্য এদিন সমুদ্রগর্ভে পবিত্র মাটি ও জল ঢাললেন মোদি৷ বিশেষ হোভারক্রাফটে চেপে মোদি ও অন্যান্য বিশিষ্টজনরা মাঝসমুদ্রে এক বিশেষ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যান৷ এরপর মোদি যাবেন মুম্বই ও পুনের মেট্রো প্রকল্পের উদ্বোধন করতে৷

নরিম্যান পয়েন্ট ও মালাবার হিলের মধ্যে ৩০৯ ফুট উচ্চতার এই মূর্তি গড়ে উঠবে৷ যার জন্য কেন্দ্র, প্রতিরক্ষা মন্ত্রক, নৌসেনা, উপকূলরক্ষী বাহিনী-সহ ১২টি জরুরি বিভাগের অনুমতি নিয়েছে মহারাষ্ট্র প্রশাসন৷ নিউ ইয়র্কের স্ট্যাচু অফ লিবার্টির থেকেও উঁচু হবে এই মূর্তি৷ মনে করা হচ্ছে, মূর্তিটি ভবিষ্যতের পর্যটকদের জন্য আকর্ষণের কেন্দ্র হয়ে উঠবে৷

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ