৮ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ২৬ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘প্রধান বিভাজক নরেন্দ্র মোদি৷’ প্রখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনের কভারে মোদির ছবির সঙ্গে এমন মন্তব্য নিয়ে উত্তাল হয়েছিল রাজ্য-রাজনীতি৷ শুক্রবার সে নিয়ে প্রথমবার মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী৷

সম্প্রতি মার্কিন ম্যাগাজিন ‘টাইম’-এর প্রচ্ছদে দেখা গিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীকে। বিজেপির মেরুকরণের রাজনীতির সমালোচনা করে মোদির সমালোচনায় সরব হয়েছিল মার্কিন ম্যাগাজিনটি৷ কভার ছবিতে মোদিকে ‘প্রধান বিভাজক’ বলে কটাক্ষ করে আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনটি৷ পাশাপাশি, প্রকাশিত কভার স্টোরিতে ম্যাগাজিনটি প্রশ্ন তোলে, বিজেপির হিন্দুত্ববাদের রাজনীতি এবং মোদির আমলে ভারতের অখণ্ডতা রক্ষার পদ্ধতির বিষয়েও৷ নির্বাচনের মরশুমে আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনটির এই প্রতিবেদন অস্বস্তি বাড়িয়েছিল বিজেপি নেতৃত্বের৷ এবার এপ্রসঙ্গে মোদি বললেন, “টাইম ম্যাগাজিন হল একটি বিদেশি সংবাদমাধ্যম৷ আর এর লেখক একটি পাকিস্তানি রাজনৈতিক পরিবারের সদস্য৷ তাই এমন ব্যাখ্যার গ্রহণযোগ্যতার জন্য এটুকু তথ্যই যথেষ্ট৷” অর্থাৎ প্রকারান্তরে মোদি বুঝিয়ে দেন, তাঁর বিরুদ্ধে আনা বিভাজনের অভিযোগ ভিত্তিহীন৷ সেই সঙ্গে জনসাধারণকে আরও পাঁচ বছর তাঁর সঙ্গী হওয়ার আহ্বানও জানান প্রধানমন্ত্রী৷

[আরও পড়ুন: ফুলনের কথায় বিষাদ নামে মির্জাপুরে, ভোটে এখনও প্রাসঙ্গিক ডাকাতরানি]

বিজেপি সরকারের আমলে গণপিটুনি থেকে বিভাজনের রাজনীতি, সব নিয়েই সমালোচনা করা হয়েছে ওই ম্যাগাজিনে৷ এমনকী যোগী আদিত্যনাথকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী করা থেকে মালেগাঁও বিস্ফোরণে অভিযুক্ত প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরকে লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী করা নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করা হয়েছে এখানে৷ তবে শুধুই কেন্দ্রের শাসকদলকে নয়, বিরোধীদেরও ছাড়েনি ‘টাইম’৷ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকে ‘মধ্যমেধা’ সম্পন্ন বলে কটাক্ষ করা হয়েছে৷ তবে মোদির নিন্দা করায় ম্যাগাজিনকে কাঠগড়ায় তুলেছে গেরুয়া শিবির৷ দলের অভিযোগ, সাংবাদিক তবলিন সিং এবং প্রয়াত পাক নেতা সলমন তাসিরের পুত্র অতীশ তাসির ম্যাগাজিনে এসব ছেপে মোদির ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করেছেন৷ বিজেপি মুখপাত্র সম্বিত পাত্র কটাক্ষ করে বলেন, ‘পাকিস্তানের থেকে এর চেয়ে বেশি কিছু আশা করা যায় না৷’

[আরও পড়ুন: সাংবাদিক বৈঠকে অতিথির ভূমিকায় মোদি, নেটদুনিয়ায় কটাক্ষের শিকার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং