২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তাঁর গুণমুগ্ধ অনুগামীরা রীতিমতো অবতারের আসনে বসিয়েছেন। এমন একজন অবতার যিনি গোটা দেশের সমস্ত দুঃখ-দুর্দশা দূর করার জন্য ভূমিষ্ঠ হয়েছেন। তিনি সমালোচনার ঊর্ধ্বে, তিনি কোনও ভুল করতেই পারেন না। একজন ভক্তের চোখে মোদি এমনই। তাই প্রধানমন্ত্রী যাই করুন না কেন, ভক্তরা তাঁকে শুভেচ্ছা জানতেই অভ্যস্ত। অনেকক্ষেত্রেই দেখা যায় তাঁরা হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে যে কোনও কাজের জন্যই শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেলছেন। তেমনই ঘটেছে ঝাড়খণ্ডের এই বিজেপি নেতার ক্ষেত্রে।

[আরও পড়ুন: ‘প্রধান বিভাজক’ মোদি! বিজেপির মেরুকরণের রাজনীতির সমালোচনায় টাইম ম্যাগাজিন]

সম্প্রতি প্রখ্যাত মার্কিন ম্যাগাজিন ‘দ্য টাইম’ এর কভার ছবিতে দেখা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রীকে। বিজেপির মেরুকরণের রাজনীতির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনায় সরব প্রখ্যাত মার্কিন ম্যাগাজিন৷ কভার ছবিতে মোদিকে ‘প্রধান বিভাজক’ বলে কটাক্ষ করে আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনটি৷ পাশাপাশি, প্রকাশিত কভার স্টোরিতে ম্যাগাজিনটি প্রশ্ন তোলে, বিজেপির হিন্দুত্ববাদের রাজনীতি এবং মোদির আমলে ভারতের অখণ্ডতা রক্ষার পদ্ধতির বিষয়েও৷ ওয়াকিবহাল মহলের মতে, নির্বাচনের মরশুমে আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনটির এই প্রতিবেদন অস্বস্তি বাড়াতে পারে বিজেপি নেতৃত্বের৷ এবং চাপে ফেলতে পারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে৷

[আরও পড়ুন: ষষ্ঠ দফার আগেই বুথ ফেরত সমীক্ষা কংগ্রসের, আশা দেখছেন রাহুল]

এসব নিয়ে যখন গোটা দেশে কাটাছেঁড়া চলছে, তখনই হাস্যকর কাজ করে ফেললেন মোদিজির গুণমুগ্ধ ভক্ত তথা ঝাড়খণ্ড রাজ্য বিজেপির যুব নেতা উমেশ রঞ্জন সাহু। তিনি, এই প্রধান বিভাজক খেতাব পাওয়ার জন্যও মোদিজিকে শুভেচ্ছা জানিয়ে ফেললেন। ফেসবুকে রীতিমতো পোস্টার তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান উমেশ রঞ্জন। বিজেপি যুব মোর্চার ছোটনাগপুরের পর্যবেক্ষক উমেশ ফেসবুকে লেখেন, “বিখ্যাত মার্কিন পত্রিকাকে প্রধানমন্ত্রীকে ডিভাইডার ইন চিফ খেতাব দিয়েছে। এর জন্য পুরো দেশের তরফে আমরা প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাই।” ফেসবুকে উমেশের এই পোস্ট নিমেষে ভাইরাল হয়ে যায়। নেটিজেনরা তাঁকে নিয়ে রীতিমতো রসিকতা শুরু করে দেন। নিজের ভুল বুঝতে পেরে পোস্টটি ডিলিট করে দিয়েছেন গেরুয়া শিবিরের ওই যুব নেতা। এ বিষয়ে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা ভুল করে পোস্ট করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং