BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘প্রধান বিভাজক’ মোদি! বিজেপির মেরুকরণের রাজনীতির সমালোচনায় টাইম ম্যাগাজিন

Published by: Tanujit Das |    Posted: May 10, 2019 12:51 pm|    Updated: May 11, 2019 3:51 pm

Time Magazine cover story slams PM Modi, calls him divider

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির মেরুকরণের রাজনীতির সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমালোচনায় সরব প্রখ্যাত মার্কিন ম্যাগাজিন ‘টাইম’৷ কভার ছবিতে মোদিকে ‘প্রধান বিভাজক’ বলে কটাক্ষ করল আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনটি৷ পাশাপাশি, প্রকাশিত কভার স্টোরিতে ম্যাগাজিনটি প্রশ্ন তুলল, বিজেপির হিন্দুত্ববাদের রাজনীতি এবং মোদির আমলে ভারতের অখণ্ডতারক্ষার পদ্ধতির বিষয়েও৷ ওয়াকিবহাল মহলের মতে, নির্বাচনের মরশুমে আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনটির এই প্রতিবেদন অস্বস্তি বাড়াতে পারে বিজেপি নেতৃত্বের৷ এবং চাপে ফেলতে পারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে৷

[আরও পড়ুন: কৃত্রিম পায়ে নিখুঁত ছন্দ, নেটদুনিয়ায় ঝড় তুলছে যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগান শিশু]

এর আগেও একাধিকবার টাইম ম্যাগাজিনের কভার ছবিতে দেখা গিয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে৷ তাঁকে নিয়ে অনেক ধরনের প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে৷ তবে এবারের মতো, কোনওবারই এতটা কটাক্ষের মুখে পড়তে হয়নি তাঁকে৷ ম্যাগাজিনের কভার স্টোরির শিরোনামে প্রতিবেদক অতীশ তাসির লিখেছেন, “Can the World’s Largest Democracy Endure Another Five Years of a Modi Government?” যার বাংলা অর্থ দাঁড়ায়, ‘বিশ্বের সর্ববৃহৎ গণতান্ত্রিক দেশ ভারত কি আরও পাঁচ বছরের জন্য মোদির শাসন সহ্য করতে পারবে?’ প্রতিবেদনের প্রথম লাইনে তিনি লিখেছেন, “Of the great democracies to fall to populism, India was the first.” এর অর্থ হল, ‘ ভারতই হল প্রথম দেশ যেখানে জনমোহিনী নীতির সামনে ভেঙে পড়েছে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ৷’

[আরও পড়ুন: প্লেট থেকে উঠে এল নন-ভেজ আইটেম! তরুণীকে আক্রমণ জ্যান্ত অক্টোপাসের ]

কেবল ভারতই নয় প্রকাশিত প্রতিবেদনে অতীশ তাসির তুলে ধরেছেন তুরস্ক, ব্রাজিল, ব্রিটেন ও আমেরিকার কথাও৷ তিনি জানান, ধীরে ধীরে জনমোহিনী নীতির দিকেই ঝুঁকতে শুরু করেছে এই সমস্ত দেশ৷ কোথাও গিয়ে গণতান্ত্রিক নীতি বা মূল্যবোধ পিছনে চলে যাচ্ছে৷ জনগণের সংখ্যাগরিষ্ঠ অংশ যা চাইছে তখন সরকারকে সেই দিকেই ঝুঁকতে হচ্ছে৷ ফলে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও জনমোহিনী নীতি দুটো একসঙ্গে সমান্তরাল ভাবে চালনা করা সম্ভবপর হচ্ছে না সরকারের পক্ষে৷ এখানেই শেষ নয়, ২০০২-এর গুজরাট দাঙ্গার প্রসঙ্গে টেনেও প্রতিবেদনে মোদির সমালোচনা করেছেন লেখক৷ গো-রক্ষকদের দ্বারা সমগ্র দেশে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ যে বারবার আক্রান্ত হয়েছেন তাঁর বিরুদ্ধেও লেখা হয়েছে প্রতিবেদনে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে