BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এক বছরে দেশে জাল নোট বেড়ে দ্বিগুণ! রিজার্ভ ব্যাংকের তথ্য তুলে মোদিকে তোপ তৃণমূলের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 29, 2022 1:47 pm|    Updated: May 29, 2022 1:47 pm

Pointing to data on fake currency notes in Reserve Bank of India's annual report, TMC attacks PM Modi | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের ফলে দেশে কমবে জাল নোটের সংখ্যা। ২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর বিমুদ্রাকরণের সিদ্ধান্ত ঘোষণার সময়ই বড় মুখ করে দাবি করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। কিন্তু পরিসংখ্যান মোদির সেই দাবিকে সমর্থন করছে না। নোট বাতিলের পর প্রতিবছরই নিয়ম করে বাড়ছে জাল নোটের পরিমাণ। গত এক বছরে যা বেড়েছে রেকর্ড গতিতে। খোদ রিজার্ভ ব্যাংকের পরিসংখ্যান বলছে সেকথা। যা হাতিয়ার করে মোদিকে এবার প্রবল আক্রমণ করল তৃণমূল।

রবিবার তৃণমূলের (TMC) রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন টুইটে বলেন, “নমস্কার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নোট বাতিলের কথা মনে আছে। কীভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) আপনার বিরোধিতায় সরব হয়েছিলেন। মনে আছে আপনি বলেছিলেন কীভাবে নোট বাতিলের (Note Ban) ফলে জাল নোটের পরিমাণ কমে যাবে। এই দেখুন রিজার্ভ ব্যাংকের পরিসংখ্যান কী বলছে?” টুইটে একটি গ্রাফিক্সও যোগ করে দিয়েছেন ডেরেক। যাতে দেখানো হয়েছে, ২০২০-২১ অর্থবর্ষের তুলনায় ২০২১-২২ অর্থবর্ষে জাল ৫০০ টাকার নোটের সংখ্যা বেড়েছে ১০১.৯ শতাংশ। অর্থাৎ এক বছরে ৫০০ টাকার জাল নোট দ্বিগুণেরও বেশি হয়ে গিয়েছে। একইভাবে গত এক বছরে ২ হাজার টাকার জাল নোটের সংখ্যাও বেড়েছে প্রায় ৫৪.৬ শতাংশ।

[আরও পড়ুন: সমকামীদের মধ্যেই বেশি ছড়াচ্ছে Monkeypox! ‘সংক্রমণ আরও বাড়বে’, উদ্বেগ WHO’র]

রিজার্ভ ব্যাংকের তথ্য বলছে, শুধু ৫০০ আর ২ হাজার নয়। অন্যান্য সমস্ত নোটেই বাড়ছে জাল। ২০০ টাকার নোটে জাল বেড়েছে ১১.৭ শতাংশ। ১০ টাকা, ২০ টাকার নোটেও বেড়েছে জালের সংখ্যা। গত এক বছরে ১০ টাকার জাল নোটের সংখ্যা বেড়েছে ১৬.৪ শতাংশ। ২০ টাকার নোটে জাল বেড়েছে ১৬.৫ শতাংশ। জাল নোট বৃদ্ধির এই পরিসংখ্যানই এখন হাতিয়ার তৃণমূলের। তবে শুধু তৃণমূল নয়। আসরে নেমেছে কংগ্রেসেও। রাহুল গান্ধীও (Rahul Gandhi) টুইট করে জাল নোট সংক্রান্ত এই পরিসংখ্যান নিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধেছেন।

[আরও পড়ুন: সেনায় চার বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ, অবসরের পর স্থায়ী পদে ফিরবেন মাত্র ২৫ শতাংশ]

রিজার্ভ ব্যাংকের দেওয়া আরেকটি তথ্য আরও চমকপ্রদ। রিজার্ভ ব্যাংক (Reserve Bank) বলছে ২০১৬ সালে নোট বাতিলের আগে যেখানে বাজারে নগদ ছিল ১৮ লক্ষ কোটির কাছাকাছি। সেখানে এখন বাজারে নগদের পরিমাণ প্রায় ৩১ লক্ষ। অর্থাৎ, নোট বাতিলের আরেকটি যে উদ্দেশ্য ছিল বাজারে নগদের জোগান কমিয়ে ক্যাশলেস অর্থনীতি (Cashless Economy) হিসাবে ভারতকে গড়ে তোলা। সেটিও ব্যর্থ হয়েছে। সেটা নিয়েও কেন্দ্রকে বিঁধেছেন রাহুল।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে