৩০ চৈত্র  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৩ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মোদি ম্যাজিকে উত্তরপ্রদেশে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 5, 2017 9:07 am|    Updated: January 5, 2017 9:14 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচন কমিশন উত্তরপ্রদেশ-সহ পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করার দিনই জনমত সমীক্ষায় এগিয়ে থাকল বিজেপি৷ একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের করা সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে, আসন্ন নির্বাচনে উত্তরপ্রদেশে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি৷ ধুয়েমুছে যাবে কংগ্রেস, বামেরা৷

(১৩ হাজার কোটি টাকার অস্ত্র রপ্তানির পথে ভারত)

কেন্দ্রীয় সরকারের নোট বাতিলের সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সামনে বড় পরীক্ষা উত্তরপ্রদেশের নির্বাচন৷ ২০ কোটি জনসংখ্যার রাজ্য উত্তরপ্রদেশে ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে ৮ মার্চ মোট সাত দফায় ভোটগ্রহণ পর্ব চলবে৷ এছাড়াও গোয়া, মণিপুর, পাঞ্জাব, এবং উত্তরাখণ্ডে ফেব্রুয়ারি-মার্চে ভোট হবে৷ পাঁচ রাজ্যের ভোটের ফল ঘোষণা হবে ১১ মার্চ৷ নিয়ন্ত্রণরেখায় এবং কালো টাকায় ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ চালানোর পর প্রধানমন্ত্রী মোদি তাঁর জনপ্রিয়তা কতটা ধরে রাখতে পেরেছেন বা হারিয়েছেন, তা জানা যাবে ওইদিনই৷ তাই এই ভোটে এখন থেকেই নজর রাখা শুরু করেছে দেশের সব অংশের মানুষ৷

সমীক্ষা বলছে, নোট বাতিলে আখেরে মোদির জনপ্রিয়তা বেড়েছে৷ সাধারণ মানুষ আস্থা দেখাচ্ছেন মোদির বৈপ্লবিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতার উপর৷ পাশাপাশি, নোট বাতিলের বিরোধিতা করায় বিরোধীদের প্রতি জনগণের আস্থা কমেছে, বেড়েছে রাগ-ক্ষোভ৷ সমীক্ষা বলছে, আসন্ন নির্বাচনে ৪০৩টির মধ্যে ২০৬-২১৬টি বিধানসভা আসনে জয়ী হবে গেরুয়া শিবির৷ ২০১২-র বিধানসভা নির্বাচনে ১৫ শতাংশ ভোট পেয়েছিল বিজেপি, জিতেছিল ৪৭টি আসনে৷

(পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনের দিন ঘোষণা কমিশনের)

সমীক্ষা আরও জানাচ্ছে, বর্তমান শাসক দল সমাজবাদী পার্টি আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হতে পারে৷ সপা পেতে পারে ৯২-৯৭টি আসন৷ মায়াবতীর বহুজন সমাজবাদী পার্টি পেতে পারে ৭৯-৮৫টি আসন৷ তবে মুসলিম ভোটব্যাঙ্কে কামড় বসাতে পারবেন না মায়াবতী, মুসলিম ভোটাররা সপা-র প্রতিই সদয় থাকবেন বলে জানাচ্ছে সমীক্ষা৷ তা সে যতই যাদব পরিবারে কোন্দল লেগে থাক না কেন!

তবে আসন্ন নির্বাচনে ভরাডুবি হবে কংগ্রেসের৷ বড়জোর ৫-৯টি আসন পাবে কংগ্রেস৷ অন্যান্য দলগুলি যেমন রাষ্ট্রীয় লোক দল, আপনা দল ও বামেরা সবমিলিয়ে ৭-১১টি আসন পেতে পারে বলে আঁচ করেছে সমীক্ষা৷ বিজেপি জিতলে মুখ্যমন্ত্রী পদে অধিকাংশেরই পছন্দ রাজনাথ সিংকে৷ তাঁর পক্ষে মত দিয়েছেন ২০ শতাংশ মানুষ৷ চমক আরও রয়েছে৷ রাজনাথের পর গোরখপুরের সাংসদ যোগী আদিত্যনাথকে মুখ্যমন্ত্রী পদে দেখতে চান ১৮ শতাংশ মানুষ৷

দু’দিন আগে লখনউয়ে দলের পরিবর্তন যাত্রায় মোদি আশাপ্রকাশ করেছেন, সে রাজ্যে এবার বিজেপির ১৪ বছরের নির্বাসন শেষ হওয়ার সময় এসেছে৷ ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতেও উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা ভোট খুব গুরুত্বপূর্ণ৷ বলা হয়ে থাকে উত্তরপ্রদেশ যার, দিল্লি তার৷ উল্লেখ্যযোগ্যভাবে, প্রধানমন্ত্রী মোদির লোকসভা কেন্দ্রও এই রাজ্যেই, বারাণসী৷ তাই উত্তরপ্রদেশে দলের জন্য জয় নিয়ে আসা তাঁর কাছে এক বড় চ্যালেঞ্জ৷ আর তার জন্য মোদি ইতিমধ্যেই এই রাজ্যে সব ধরনের ‘রাজনৈতিক মূলধন’ ঢেলে দিয়েছেন৷ গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির প্রচারের প্রধান মুখ ছিলেন মোদি৷ আর তাতেই উত্তরপ্রদেশের ৮০টি লোকসভা আসনের মধ্যে বিজেপির ঝুলিতে এসেছিল ৭৩টি আসন৷ কিন্তু তারপর গঙ্গা দিয়ে অনেক জল বয়ে গিয়েছে৷ এবারও উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে দলের প্রধান কান্ডারি মোদি-ই৷ কিন্তু তাঁর জনপ্রিয়তা বেড়েছে না কমেছে, তা জানা যাবে ১১ মার্চ৷

(প্রয়োজনে ফের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক, জানিয়ে দিলেন নয়া সেনাপ্রধান)

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement