২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  রবিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দায়িত্ব বাড়ল বিজেপির বিতর্কিত সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরের। সমস্ত বিতর্ককে দূরে সরিয়ে রেখে সরকারে আরও গুরুত্ব বাড়ল তাঁর। কারণ, মালেগাঁও বিস্ফোরণের অন্যতম অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুরকেই এবার প্রতিরক্ষা বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে।

২০০৮ সালে মালেগাঁও বিস্ফোরণে অন্যতম অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞা। শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে বর্তমানে জামিনে মুক্ত। তাঁর বিরুদ্ধে বেআইনি কার্যকলাপ, অস্ত্র আইন-সহ বিভিন্ন ধারায় অভিযোগ রয়েছে। চলতি বছর লোকসভা নির্বাচনের আগে গেরুয়া শিবিরে নাম লেখান সাধ্বী প্রজ্ঞা। ভোপাল লোকসভা কেন্দ্র থেকে লোকসভা ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তিনি। কংগ্রেসের শীর্ষস্তরের নেতা দিগ্বিজয় সিংকে হারান তিনি। কয়েক লক্ষ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হন সাধ্বী প্রজ্ঞা। পদ্ম শিবিরে নাম লেখানোর পর থেকে কখনও নাথুরাম গডসকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য তো আবার ক্যানসার সারানোর দাওয়াই হিসাবে গোমূত্রের উপযোগিতা নিয়ে কথা বলে বিতর্ক উসকে দিয়েছেন সাধ্বী প্রজ্ঞা। তাঁকে নিয়ে বিরোধী মহলে সমালোচনার অন্ত নেই।

সেই সাধ্বী প্রজ্ঞারই দায়িত্ব বাড়ল সংসদে। এবার প্রতিরক্ষা বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য হিসাবে মনোনীত করা হয়েছে তাঁকে। মোট ২১ সদস্যের এই কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাতে নেতৃত্ব দেবেন খোদ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। এছাড়াও ওই কমিটিতে রয়েছেন বিরোধী দলের ফারুক আবদুল্লা এবং শরদ পওয়ারও।

[আরও পড়ুন: স্বস্তিতে টেলিকম ইন্ডাস্ট্রি, স্পেকট্রাম বকেয়া মেটাতে আরও ২ বছর সময় দিল কেন্দ্র]

মালেগাঁও বিস্ফোরণ মূল অভিযুক্ত হওয়ার পরেও সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুরকে কেন এমন গুরুত্বপূর্ণ কমিটির সদস্য করা হল, তা নিয়েই উঠেছে হাজারও প্রশ্ন। কংগ্রেসের দাবি, এই সিদ্ধান্তের মাধ্যমে দেশবাসীকে অপমান করা বয়েছে। টুইটে উল্লেখ করা হয়েছে, “প্রজ্ঞা ঠাকুর নিজে সন্ত্রাসে অভিযুক্ত। তিনি নাথুরাম গডসের ভক্ত। বিজেপি সরকার তাঁকে উপদেষ্টা কমিটির সদস্য করেছে। এতে আমাদের সম্মানিত প্রতিরক্ষা বাহিনী, প্রত্যেক সাংসদ এবং দেশবাসী অপমানিত হয়েছেন।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং