১৩ ফাল্গুন  ১৪২৬  বুধবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

এনআরসি ইস্যুতে ফের সরব প্রশান্ত কিশোর, এবার বিঁধলেন রাহুল গান্ধীকে

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 24, 2019 5:06 pm|    Updated: December 24, 2019 5:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এনআরসি ইস্যুতে ফের কংগ্রেসকে বিঁধলেন ভোট কৌশলী তথা তৃণমূলের নির্বাচনী পরামর্শদাতা প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishor)। কেন্দ্রের প্রস্তাবিত এনআরসি তথা সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের তীব্র সমালোচক প্রশান্ত। এতদিন এই ইস্যুতে কংগ্রেস পথে না নামায় আগেই একবার খোঁচা দিয়েছিলেন তিনি। এবার তিনি দাবি করলেন, কংগ্রেস, যদি সত্যিই এনআরসি বিরোধী হয়ে থাকে, তাহলে সরকারিভাবে ঘোষণা করা হোক যে, কংগ্রেস শাসিত কোনও রাজ্যে এনআরসি লাগু করা হবে না।

Rahul-Gandhi
সোমবারই দিল্লির রাজঘাটে এনআরসির বিরুদ্ধে ধরনায় বসে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। সেই ‘সত্যাগ্রহে’ হাজির ছিলেন রাহুল গান্ধী, সোনিয়া গান্ধী, প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, মনমোহন সিং-সহ কংগ্রেস শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। কিন্তু, তাতে সন্তুষ্ট নন পিকে। মঙ্গলবার এনআরসি ও কংগ্রেস নিয়ে একাধিক টুইট করেন রাজনৈতিক পরামর্শদাতা। প্রথমে তিনি রাহুল গান্ধীকে (Rahul Gandhi) শুভেচ্ছা জানান, এতদিন বাদে নাগরিকদের বিক্ষোভে শামিল হওয়ার জন্য। তারপরই চ্যালেঞ্জ ছোঁড়েন প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতির উদ্দেশে। একটি টুইট করে তিনি বলেন, “আপনাকে ধন্যবাদ অবশেষে নাগরিকদের এই বিক্ষোভে শামিল হওয়ার জন্য। কিন্তু, আপনিও হয়তো জানেন শুধু সাধারণ মানুষের বিক্ষোভে কাজ হবে না। আমরা চাই, রাজ্য সরকারগুলিও এনআরসিকে ‘না’ বলুক। আমরা আশা করছি খুব দ্রুতই কংগ্রেসের তরফে ঘোষণা করা হবে, কংগ্রেস শাসিত কোনও রাজ্যে এনআরসি হচ্ছে না।” আসলে, পিকে তাঁর এই টুইটের মাধ্যমে মিষ্টি কথায় রাহুলকে বিঁধেছেন। কারণ, এনআরসি ইস্যুতে কংগ্রেসের অবস্থান নিয়ে অনেকের মনেই দোলাচল আছে।

 

[আরও পড়ুন: গুরুত্ব পেল না রাজ্যের আপত্তি! কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় পাশ এনপিআর আপডেটের প্রস্তাব]

যদিও, কংগ্রেস শাসিত অধিকাংশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছেন, তাঁদের রাজ্যে এনআরসি চালু করা হবে না। সরকারিভাবে এআইসিসির তরফে একটি এনআরসি বিরোধী প্রস্তাবও পাশ হয়েছে। যদিও, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী এখনও সরকারিভাবে ঘোষণা করেননি, যে কংগ্রেস শাসিত কোনও রাজ্যে এনআরসি হবে না। এদিন, সে প্রসঙ্গেও মনে করিয়ে দিয়েছেন প্রশান্ত কিশোর। তাঁর দাবি, সরাসরি কংগ্রেস সভানেত্রীকে বিবৃতি দিয়ে জানাতে হবে, তাঁদের শাসনে থাকা কোনও রাজ্যে এনআরসি হবে না।

[আরও পড়ুন: ‘বাস-ট্রেন জ্বালানোর অধিকার কে দিয়েছে ওদের?’, CAA’র সমর্থন করে সমালোচিত কঙ্গনা]

এনআরসি ইস্যুতে প্রশান্তের কংগ্রেসকে আক্রমণ অবশ্য নতুন কিছু নয়। দেশের বৃহত্তম বিরোধী হওয়া সত্ত্বেও কংগ্রেসের তরফে এনআরসির উপযুক্ত প্রতিবাদ বা প্রতিরোধ দেখতে না পাওয়ায় আগেও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি। কেন কংগ্রেস রাস্তায় নামছে না? সে প্রশ্নও তুলেছেন পিকে।

An Images
An Images
An Images An Images