৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

৮০ শতাংশ টিকাকরণ না হলে পাঁচ রাজ্যে ভোট নয়, কমিশনের কাছে দাবি প্রশান্ত কিশোরের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 7, 2022 4:56 pm|    Updated: January 7, 2022 5:19 pm

Prashant Kishor's suggestion to ECI on holding polls amid pandemic | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তিনি ভোটকুশলী। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলকে ভোটের প্রচার কৌশল নিয়ে পরামর্শ দেন। করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতিতে সেই প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishor) নয়া অবতারে। একেবারে সাধারণ নাগরিকের মতো ঘুরিয়ে পাঁচ রাজ্যের ভোট পিছিয়ে দেওয়ার দাবি তুললেন তিনি। পিকে বলছেন, ভোটমুখী রাজ্যগুলিতে অন্তত ৮০ শতাংশ মানুষ টিকার দুটি করে ডোজ না পেলে ভোট করানো উচিত নয়।

শুক্রবার এক টুইটে ভোট কুশলী বলছেন,”ভোটমুখী রাজ্যগুলির ৮০ শতাংশ জনগণের করোনার ভ্যাকসিনের (Corona Vaccine) দুটি ডোজ পাওয়া নিশ্চিত করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে। এটাই এই মহামারীর সময়ে পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার সবচেয়ে সুরক্ষিত পথ। বাকি সব কিছুই অনর্থক।” পিকে মনে করছেন, নির্বাচন কমিশন যে কোভিড বিধি রাজনৈতিক দলগুলির জন্য বেঁধে দিয়েছে, তা নিরর্থক, কেউ মানে না। তিনি বলছেন,”কমিশনের বেঁধে দেওয়া আদর্শ কোভিড (COVID-19) বিধি পুরোপুরি অর্থহীন। কেউ এসব মানে না।”

[আরও পড়ুন: ‘মোদির নিরাপত্তায় গলদ বিরলতম ঘটনা, লজ্জায় পড়তে পারে দেশ’, সুপ্রিম কোর্টে বলল কেন্দ্র]

প্রসঙ্গত, দেশে ওমিক্রনের প্রকোপ বৃদ্ধির পর পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার দাবি নতুন কিছু নয়। এর আগে খোদ এলাহাবাদ এবং উত্তরাখণ্ড হাই কোর্ট ভোট পিছিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনকে ভেবে দেখতে অনুরোধ করেছে। নিদেনপক্ষে বড়বড় জনসভা যাতে রাজনৈতিক দলগুলি না করতে পারে, সেটা নিশ্চিত করতে কমিশনকে (Election Commission) অনুরোধ করেছে আদালত।

[আরও পড়ুন: ‘অ-হিন্দুদের প্রবেশ নিষেধ’! বারাণসীর ঘাটে ফতোয়া জারি বজরং দল ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের]

কিন্তু এখনও পর্যন্ত যা খবর, তাতে নির্বাচন কমিশন ভোট পিছানোর কথা ভাবছে না। অর্থাৎ ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাসেই পাঁচ রাজ্যের ভোট হতে পারে। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলির মতামত নেওয়া হয়েছে কমিশনের তরফে। সব দলই সময়ে ভোটগ্রহণের পক্ষে। তবে, সময়মতো ভোটগ্রহণ হলেও বেশ কিছু প্রচার বিধি রাজনৈতিক দলগুলিকে বেঁধে দেওয়া হতে পারে। যদিও পিকের মতে এভাবে প্রচার বিধি বেঁধে দেওয়া যুক্তিহীন। কেউই এগুলি মানবে না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে