BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আজ শপথ নেবেন মোদি, অনুষ্ঠানের আগে দিল্লিতে চাঁদের হাট

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 30, 2019 9:38 am|    Updated: May 30, 2019 1:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আর মাত্র কয়েকঘণ্টার প্রতীক্ষা৷ রাষ্ট্রপতি ভবনে দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন নরেন্দ্র মোদি৷ ইতিমধ্যেই দেশ-বিদেশের বহু অতিথি দিল্লিতে চলে এসেছেন৷ রীতিমতো যুদ্ধকালীন তৎপরতায় চলছে মেগা ইভেন্টের  শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি৷ অন্তত ৮ হাজার জন অতিথি উপস্থিত থাকতে পারেন এই অনুষ্ঠানে৷ তাঁদের আপ্যায়নে ব্যস্ততা তুঙ্গে হেঁশেলেও৷

বৃহস্পতিবার সন্ধে সাতটা থেকেই শুরু হয়ে যাবে মোদির শপথগ্রহণের অনুষ্ঠান৷

তবে তার আগে সকাল থেকে একগুচ্ছ কর্মসূচি ছিল মোদির৷ রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধী এবং অটলবিহারী বাজপেয়ীর সমাধিতে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন তিনি৷

মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ইতিমধ্যেই দিল্লিতে এসে উপস্থিত হয়েছেন ভুটানের প্রধানমন্ত্রী লোতে শেরিং৷ 

মরিশাসের প্রধানমন্ত্রীও ইতিমধ্যেই মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাজধানীতে পা রেখেছেন৷ 

রাষ্ট্রপতি ভবনের একটি অত্যন্ত নামকরা পদ ‘ডাল রাইসিনা’। মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে আসা অতিথিদের জন্য রয়েছে এই পদের বন্দোবস্ত৷ এই পদ রান্নার দায়িত্বে রয়েছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা শেফ মাচিন্দ্র কস্তুরে৷ তাঁর রান্না খেয়ে প্রশংসা করেছিলেন বারাক ওবামা৷ ‘ডাল রাইসিনা’ বানাতে প্রধান উপকরণ হিসাবে প্রয়োজন অড়হর ডাল, টমেটো পিউরির সঙ্গে জাফরান৷ প্রতিটি উপকরণই এসেছে লখনউ থেকে৷ এই ডাল তৈরি করতে সময় লাগে কমপক্ষে আট ঘণ্টা। বিমস্টেকভুক্ত রাষ্ট্রনেতাদের খাদ্যাভাস একেবারেই অন্যরকম৷ তাই তাঁদের কথা মাথায় রেখেই বিভিন্ন স্বাদের পদের আয়োজন রাষ্ট্রপতির হেঁশেলে৷ ‘ডাল রাইসিনা’ এই অতিথিদের ভাল লাগবে বলেই আশা রাঁধুনিদের৷ এছাড়াও রাষ্ট্রপতি ভবনে সিগনেচার পদ হজমও হয় খুবই তাড়াতাড়ি৷

[ আরও পড়ুন: ‘রাম’ নাম না করায় বিদেশি হিন্দু যুবককে ছুরি মারল ভারতীয় ভক্ত]

এক্কেবারে প্রথমেই অতিথিতেই দেওয়া হবে লেমন টার্ট, বিভিন্ন রকমের স্যান্ডুইচ, পনির টিক্কা, সিঙাড়া এবং রাজভোগ। এছাড়াও থাকছে লেমন করিয়েন্ডর সুপ। রাতের মূল খাওয়াদাওয়ার সময় থাকবে নিরামিষ-আমিষ দু’ধরনের পদই। নিরামিষে প্রধানত গুজরাটি খাবার রাখা থাকবে৷ এছাড়াও দক্ষিণী ভারতীয় অতিথিদের কথা মাথায় রেখে থাকছে দক্ষিণ ভারতীয় পদও। দরবার হলে খুবই কম লোককে বসতে দেওয়ার জায়গা রয়েছে৷ তাই দরবার হলের বাইরে রাষ্ট্রপতি ভবনের সামনেই শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়৷ প্রচণ্ড গরমের জেরে অতিথিদের জন্য অতিরিক্ত জলের বন্দোবস্ত করা হয়ছে৷ সন্ধেয় প্রায় দুই-আড়াই ঘণ্টা ধরে চলতে পারে এই অনুষ্ঠান৷ 

দ্বিতীয়বার মোদি প্রধানমন্ত্রী পদে শপথ নেবেন বলে কথা তাই তাঁকে উপহার হিসাবে বাংলা থেকে পাঠানো হল গোলাপখাস আম৷ উপহার হিসাবে পাঠালেন নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জ থানার সীমান্তবর্তী শিবনিবাস গ্রাম পঞ্চায়েতের কৃষ্ণপুর এলাকার ক্ষুদ্র  আমচাষী। শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে আশিস কুমার বিশ্বাস ওই ক্ষুদ্র আমচাষীর দেওয়া উপহারটি তুলে দেবেন  প্রধানমন্ত্রীর হাতে। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement