BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  রবিবার ১৪ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Presidential Election 2022: মনোনয়ন জমা দেবেন বিরোধীদের রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী যশবন্ত সিনহা, সঙ্গী অভিষেক

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 27, 2022 8:58 am|    Updated: June 27, 2022 9:11 am

Presidential Election 2022: Presidential candidate of oppositions Yashwant Sinha will file nominationa today, AITC General Secretary Abhishek Banerjee will be with him

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত, নয়াদিল্লি: রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য আজ মনোনয়ন দাখিল করবেন বিজেপি (BJP) বিরোধী জোটের প্রার্থী যশবন্ত সিনহা (Yashwant Sinha)। বেলা একটা নাগাদ মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় তাঁর সঙ্গে থাকবেন তৃণমূল (TMC) সাংসদ ও দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। মহারাষ্ট্রের সরকার টালামাটাল পরিস্থিতিতে থাকলেও থাকবেন এনসিপি নেতা শরদ পওয়ার। মনোনয়ন দাখিল হওয়ার পর তাঁর আহ্বানেই আজ ফের সংসদে নির্বাচনী কৌশল নিয়ে আলোচনা করতে বৈঠকে বসবে অবিজেপি দলের নেতৃত্ব। কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মল্লিকার্জুন খাড়গে ও জয়রাম রমেশও থাকবেন বলে জানা গিয়েছে। তবে মনোনয়ন বা পরবর্তী বৈঠকে কারা হাজির থাকছেন না, সেদিকে নজর রাখবে অবিজেপি জোটের নেতৃত্ব।

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজেপি বিরোধী প্রার্থী দিতে অগ্রণী ভূমিকা নেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। তাঁর ডাকেই দিল্লিতে প্রথম বৈঠকে কংগ্রেস-সহ দেশের ১৮টি দল যোগ দেয়। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজেপিকে ফাঁকা মাঠ ছাড়া হবে না। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, প্রার্থী দেবে অবিজেপি বিরোধী জোট। দ্বিতীয় বৈঠক ডাকেন শরদ পওয়ার। সেই বৈঠকেই ঠিক হয়, বিরোধীদের প্রার্থী হবেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশবন্ত সিনহা। এই সিদ্ধান্তে সিলমোহর পড়ার পর ২৭ জুন মনোনয়ন দাখিল করার দিনক্ষণ স্থির হয়।

[আরও পড়ুন: ‘জরুরি অবস্থা ছিল কলঙ্কময় দিন, ভারতীয়দের জিনে রয়েছে গণতন্ত্র’, জার্মানিতে বললেন মোদি]

এদিকে, বিজেপি প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু (Draupadi Murmu) গত শুক্রবার মনোনয়ন দাখিল করেছেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা-সহ তাবড় তাবড় নেতারা। তারাও যে কম যান না, তা বোঝাতেই বিরোধীপক্ষও একজোট হয়ে মনোনয়ন দাখিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ইতিমধ্যেই দিল্লি এসে পৌঁছেছেন সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তারসঙ্গে রয়েছেন বিধানসভার উপ মুখ্যসচেতক তাপস রায়। থাকার কথা শুখেন্দু শেখর রায়, ডেরেক ও ব্রায়েন সহ তৃণমূলের একাধিক সাংসদ। কংগ্রেস, এনসিপি, সিপিআইএম, সিপিআই, ডিএমকে-সহ বিভিন্ন দলের হেভিওয়েট নেতৃত্ব যশবন্তের সঙ্গে থাকবেন বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ১৩ বছর রোগশয্যায় থাকার অভিনয়, ৬ কোটি টাকা সরকারি সাহায্যে বিলাস জীবন প্রৌঢ়ার, তারপর…]

মনোনয়ন দাখিলের পর সংসদেই ফের বৈঠকে বসবেন অবিজেপি দলের নেতৃত্ব। বৈঠকে প্রচার কৌশল ও যশবন্তের সমর্থন বাড়ানোর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে এর মধ্যে কয়েকদিনে গঙ্গা ও যমুনা দিয়ে গ্যালন গ্যালন জল বয়ে গিয়েছে। মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতি জটিল হওয়ার পাশাপাশি উপনির্বাচনের ফল ঘোষিত হয়েছে। সবদিক নিয়েই বৈঠকে আলোচনা হবে। তবে আপ, টিডিপির মতো দলগুলি তাঁদের অবস্থান স্পষ্ট না করায় চিন্তায় দু’পক্ষই। কারণ এই দলগুলি বিজেপি বিরোধী বলে পরিচিত হলেও কোনও শিবিরের বৈঠকেই হাজির থাকেননি। শরদ পাওয়ার এই দুই দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানিয়েছিলেন। সোমবার সকালে অবশ্য টিআরএস নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, তারা যশবন্তকেই সমর্থন করবে। আজকের বিরোধী বৈঠকে হাজির থাকার সম্ভাবনা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে