BREAKING NEWS

৩২ আষাঢ়  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

পারিবারিক ঝামেলার জের, ২৮ বছরের যুবককে পুড়িয়ে মারল স্ত্রী

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: May 26, 2020 3:38 pm|    Updated: May 26, 2020 3:38 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পারিবারিক ঝামেলার জেরে ২৮ বছরের এক যুবককে পুড়িয়ে মারল স্ত্রী। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে পাঞ্জাবের ফাজিলকা জেলার চক সাইদোকে গ্রামে। মৃতের নাম গুরুসেবক সিং। এই ঘটনার পর থেকেই পলাতক ওই যুবকের স্ত্রী সুখমনপ্রীত কাউর ওরফে বীরপাল কাউর (২৬)। তদন্ত শুরু করলে এখনও পর্যন্ত তাকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ১০ বছর আগে গুরুসেবক সিংহের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল সুখমনপ্রীত কাউরের। বর্তমানে তাদের একটি ছেলে ও মেয়ে আছে। কিছুদিন ধরেই বিভিন্ন পারিবারিক কারণে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে তুমুল গন্ডগোল চলছিল। দুদিন আগে দুজনের মধ্যে বচসা চলাকালীন আচমকা গুরুসেবকের শরীরে কেরোসিন তেল ঢেলে দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় সুখমনপ্রীত। তারপর বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। গুরুসেবকের চিৎকার শুনে তাঁর পরিবারের অন্য সদস্য ও প্রতিবেশীরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। এরপরই ওই যুবককে নিয়ে গিয়ে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে যাওয়ার পর গুরুসেবকের শরীরে ৭৫ শতাংশ পুড়ে গিয়েছে বলে জানান চিকিৎসকরা। তারপর থেকে চিকিৎসা চললেও রবিবার মৃত্যু হয় ওই যুবকের।

[আরও পড়ুন: শিকেয় কাজ, এক স্বাস্থ্যকর্মীর মৃত্যুতে বিক্ষোভ মুম্বইয়ের কেইএম হাসপাতালে ]

এরপরই মৃতের পরিবারের লোকেরা অভিযুক্ত সুখমনপ্রীতকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবিতে স্থানীয় জালালাবাদ ও মুক্তাসর রোড অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। তাঁদের অভিযোগ, পুলিশ ইচ্ছে করেই গুরুসেবকের স্ত্রীকে পালাতে সাহায্য করেছে। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাঁদের আশ্বস্ত করার পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। মৃত যুবকের ভাই গুরবিন্দার সিং স্থানীয় আমির খাস পুলিস স্টেশনে অভিযুক্তের নামে একটি লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন। তার ভিত্তিতে সুখমনপ্রীতের নামে খুনের মামলা দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে। যদিও গ্রেপ্তার হয়নি অভিযুক্ত যুবতী। বিষয়টিকে প্রবল উত্তেজনা ছড়িয়েছে স্থানীয় এলাকায়।

[আরও পড়ুন: হঠাৎ সংকটে মহারাষ্ট্রের জোট সরকার! উদ্ধবের সঙ্গে জরুরি বৈঠক পওয়ারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement