BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ৮ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

চরমে অব্যবস্থা!‌ হাসপাতালের মর্গে রাখা মৃতদেহর মুখ-কান খুবলে খেল ইঁদুর

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 2, 2020 11:03 am|    Updated: August 2, 2020 11:03 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার করুণ চিত্রটা ফের একবার সামনে এল। হাসপাতালের মর্গে রাখা এক মহিলার মৃতদেহের মুখের একাংশ এবং কান খুবলে খেল ইঁদুর। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, হাসপাতাল কর্মীদের গাফিলতিতেই এই কাণ্ড ঘটেছে। আর এই ঘটনাকে ঘিরেই হুলুস্থূল পড়ে গিয়েছে দেরাবাস্সির (Derabassi) ইন্দাস হাসপাতালে (Indus Hospital)।

[আরও পড়ুন: ‘রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর দিন লকডাউন প্রত্যাহার না করলে সরকারকে ভুগতে হবে’, হুঁশিয়ারি দিলীপের]

জানা গিয়েছে, মৃত মহিলার নাম জসজ্যোৎ কৌর (‌৫২)। পঞ্চকুলার (Panchkula) বাসিন্দা তিনি। স্বামী প্রাক্তন সেনা কর্তা। সম্প্রতি অসুস্থবোধ করায় তাঁকে ইন্দাস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সেখানেই গত বৃহস্পতিবার হৃদরোগে আক্রান্ত ‌হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। মৃত ওই মহিলার মেয়ে চমনপ্রীত কৌর জানান, এরপর তিনি মায়ের পোশাক বদলে দেন। তারপর পরিবারের লোকজনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মৃতদেহ মর্গে রাখা হয়। কিন্তু শুক্রবার অন্ত্যেষ্টি প্রক্রিয়ার জন্য পরিবারের লোকজন ওই মহিলার মৃতদেহ আনতে গিয়ে দেখেন সেটির আশেপাশে রক্ত। মুখের একাংশ এবং কান ‌ইঁদুরে (‌Rat)‌ খুবলে নিয়েছে। এই প্রসঙ্গে তখনই তাঁরা উপস্থিত হাসপাতালের কর্মীদের প্রশ্ন করেন। এরপর কর্তৃপক্ষকে জিজ্ঞাসা করেও কোনও সদুত্তর না মেলায়, শেষপর্যন্ত ক্ষোভে ফেটে পড়ে ওই মহিলার পরিবার। হাসপাতালের সামনেই বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: ‘সুশান্তের মৃত্যুতে আসল দোষীদের আড়াল করছেন উদ্ধব’, বিস্ফোরক বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী]

এদিকে, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হন পুলিশ আধিকারিকরা। তাঁরাই ওই মহিলার বাড়ির লোকদের শান্ত করেন। এরপরই পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়, চিকিৎসকদের একটি দল মহিলার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করবে। সেক্ষেত্রে যদি দেখা যায়, হাসপাতালের কোনও কর্মীর গাফিলতিতে এই ঘটনা ঘটেছে, তাহলে তাঁকে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে। এমন আশ্বাসও দেওয়া হয়েছে পুলিশের তরফে। তবে এই ঘটনা ফের একবার প্রমাণ করে দিল, দেশের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা সত্যিই কতটা শোচনীয়! 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement